ঈদ উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু

Jagoran- Eid, train, advance ticket, sold,
ad

জাগরণ ডেস্ক: পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু হয়েছে।

বুধবার (৮ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে টিকেট বিক্রি শুরু হয়। টিকেট পেতে কমলাপুরে সকাল থেকেই রয়েছে মানুষের উপচে পড়া ভীড়।

মোট ২৬টি কাউন্টার থেকে এই টিকিট দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি কাউন্টারের সামনে থেকে টিকেট প্রত্যাশী মানুষের দীর্ঘ লাইন একে বেকে চলে গেছে স্টেশনের বাইরের দিকে। গতরাত থেকে অনেকে এসে নির্ঘুম রাত কাটিয়ে লাইনে দাঁড়ায়।

রেল কর্তৃপক্ষ জানায়, ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে ঈদের টিকেট দেয়া হচ্ছে। আজ দেয়া হচ্ছে ১৭ আগস্টের টিকেট। ৯ আগস্ট দেয়া হবে ১৮ আগস্টের, ১০ আগস্ট ১৯ আগস্টের, ১১ আগস্ট ২০ আগস্টের এবং ১২ আগস্ট দেয়া হবে ২১ আগস্টের আগাম টিকেট।

একইভাবে ১৫ আগস্ট থেকে শুরু হবে ঈদ ফেরত যাত্রীদের জন্য ট্রেনের আগাম টিকেট বিক্রি। ঈদ ফেরত অগ্রিম টিকেট রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, দিনাজপুর ও লালমনিরহাট স্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় সকাল ৮টায় বিক্রি শুরু হবে। ২৪ আগস্টের ফিরতি টিকেট দেয়া হবে ১৫ আগস্ট। একইভাবে ১৬, ১৭, ১৮ ও ১৯ আগস্ট যথাক্রমে পাওয়া যাবে ২৫, ২৬, ২৭ ও ২৮ আগস্টের টিকেট।

জানাগেছে, বরাবরের মতো এবারও মোট টিকেটের ৬৫ শতাংশ দেয়া হচ্ছে কাউন্টার থেকে। বাকি ৩৫ শতাংশের ২৫ শতাংশ অনলাইন ও মোবাইলে। পাঁচ শতাংশ ভিআইপি এবং রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে পাঁচ শতাংশ।

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে মোট ১ হাজার ৪০২টি কোচ চলাচল করবে এবং ২২৯টি লোকোমোটিভ ব্যবহার করা হবে।

স্টেশন সূত্র জানিয়েছে, এবারের ঈদে ৯ জোড়া বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেগুলো হলো হচ্ছে- দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট এবং পরে ২৩ আগস্ট থেকে ২৯ আগস্ট ৭ দিন চলবে।

চাঁদপুর স্পেশাল ১: এই ট্রেনটি ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট ৪ এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম চলাচল করবে।

চাঁদপুর স্পেশাল ২: চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম চলবে ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট ৪ দিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন চলবে।

রাজশাহী স্পেশাল: এটি চলাচল করবে রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী। ঈদের আগে ১৮, ১৯ ও ২০ আগস্ট ৩ দিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন চলবে।

দিনাজপুর স্পেশাল: এই ট্রেন ঈদের আগে ১৮, ১৯ ও ২০ আগস্ট ৩ দিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন দিনাজপুর-ঢাকা-দিনাজপুর চলাচল করবে।

লালমনিরহাট স্পেশাল: এটি চলবে ঢাকা-লালমনিরহাট-ঢাকা। ঈদের আগে ১৮, ১৯, ২০ ও ২১ আগস্ট ৪ দিন এবং ঈদের পরে ২৪ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট ৭ দিন চলবে।

খুলনা এক্সপ্রেস: খুলনা-ঢাকা-খুলনা ঈদের আগে ২১ আগস্ট একদিন চলবে।

শোলাকিয়া স্পেশাল-১: ভৈরববাজার-কিশোরগঞ্জ-ভৈরববাজার রুটে ঈদের দিন চলাচল করবে।

শোলাকিয়া স্পেশাল-২: ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ রুটে ঈদের দিন চলবে।

এদিকে ঈদের ৫ দিন আগে ১৮ আগস্ট থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত সব আন্তঃনগর ট্রেন সাপ্তাহিক বন্ধের দিনও চলাচল করবে।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে (টিকেট থাকা সাপেক্ষে) বিকাল ৫টা পর্যন্ত টিকেট বিক্রি করা হবে। ঈদ উপলক্ষে প্রতি বছরের মতো এবারও অতিরিক্ত যাত্রী বহনে সাত জোড়া (১৪টি ট্রেন) বিশেষ ট্রেন ও ১৫০টি যাত্রীবাহী বাড়তি বগি প্রস্তুত করা হচ্ছে রেলওয়ে পাহাড়তলী ও সৈয়দপুর ওয়ার্কশপে।

রেলওয়ে মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন বলেন, এবারও ঈদ উপলক্ষে মাঠ পর্যায়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। যাত্রীসেবা ও অতিরিক্ত যাত্রীবহন নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হচ্ছে। ছোট-বড় রেলওয়ে স্টেশনগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে। টিকেট কালোবাজারি রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রতিদিন ২ লাখ ৬০ হাজার যাত্রী চলাচল করে। তবে ঈদুল আজহা উপলক্ষে দৈনিক ৩ লাখ যাত্রী চলাচল করার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আজ অগ্রিম টিকেট দেয়ার প্রথম দিন যাত্রীরা সুশৃঙ্খলভাবে টিকেট নিচ্ছে। যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য রয়েছেন।

ad