নারায়ণগঞ্জে ৭ দিনে ২৮০০ মামলা

Mamla
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জে গত এক সপ্তাহে বিভিন্ন যানবাহন ও চালকের বিরুদ্ধে  ২ হাজার ৮০০ মামলা দায়ের করেছে ট্রাফিক পুলিশ ও জেলা পুলিশ।

রবিবার (১২ আগষ্ট) বিকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জ সাইনবোর্ড মোড়ে ট্রাফিক সপ্তাহের বর্ধিত সময়ে যানবাহনের ফিটনেস ও কাগজপত্র তল্লাশি করার সময় জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম এসব তথ্য জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক-অঞ্চল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী, ট্রাফিক পরিদর্শক (প্রশাসন) মোল্ল্যা তসলিম, টিআই জিয়াউল করিম ও শরীফ হোসেনসহ অনেকে।

মনিরুল ইসলাম জানান, ২৮০০ মামলার মধ্যে  যানবাহনের ফিটনেস ও কাগজপত্র না থাকার কারণে ১৭০০ এবং চালকের লাইনেন্সসহ নানা ত্রুটির কারণে ১২০০ মামলা করা হয়েছে।  বাকি মামলাগুলো দেয়া হয়েছে হেলমেট ব্যবহার না করায় ও ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করায়।

তিনি বলেন, যেসব যানবাহনের কাগজপত্র সঠিক আছে তাদের আমরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছি। যাদের কাগজপত্র বা চালকের লাইসেন্স নেই তাদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে।

রবিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সাইনবোর্ডে ট্রাফিক পুলিশ গ্রীন লাইন ভলবো কোম্পনীর একটি গাড়ির কাগজপত্র তল্লাশি করছে। এ সময় দেখা যায় বাস চালক রমজান আলী হালকা যানবাহন চলাচলের লাইসেন্স নিয়ে ভারী যানবাহন পারিচালনা করছেন। এ জন্য তাকে জরিমানা করা হয়।

কক্সবাজারগামী হানিফ পরিবহনের গাড়ি থামালে দেখা যায় চালকের লাইসেন্স নেই। নেই গাড়িরও কোনো কাগজপত্রও।  এসব অভযোগে গাড়িটিকে রেকার লাগিয়ে জরিমানা আদায় করা হয়।  এ সময় ট্রফিক পুলিশের সাথে স্কাউট ও রোবার স্কাউটের ছেলে মেয়েদেরও দেখা যায়।

ad