বাংলাদেশী পাসপোর্ট নিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা, আটক ৫ রোহিঙ্গা

Rohinga
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে এসে চুয়াডাঙ্গা জয়নগর চেকপোস্ট সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশকালে পাঁচ যুবককে আটক করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ।

শুক্রবার (৬ জুলাই) চুয়াডাঙ্গার দর্শনা জয়নগর সীমান্তের চেকপোষ্টে থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বাংলাদেশী পাঁচটি পাসপোর্ট জব্দ করা হয়।

ইমিগ্রেশন পুলিশ জানান, দামুড়হুদা দর্শনার জয়নগর সীমান্তের চেকপোস্টে দিয়ে ভারতে যাওয়ার জন্য শুক্রবার সকালে পাঁচ যুবক ইমিগ্রেশনে আসে। এ সময় ইমিগ্রেশন পুলিশের সন্দেহ হলে তাদের কাছে নাম পরিচয় জানতে চাইলে তারা কিছুই বলতে পারেনি। পরে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো- পাসপোর্ট অনুযায়ী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কেষ্টপুর গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে সাকার (২৪), পাসপোর্ট নং-বিটি-০৫৯৯০৪৮, মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ি উপজেলার আডিয়াল বাজার গ্রামের আ. জলিলের ছেলে সাদেক (১৮), পাসপোর্ট নং বিটি-০৬০৯৮৮০, একই এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে আয়াল (২৫), পাসপোর্ট নং বিটি-০৬০৯৭৭১, একই জেলার টঙ্গিবাড়ি গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে আমিন (২৫), পাসপোর্ট নং বিটি-০৫৩৪৬৯২) ও ফেনী জেলার দাগনভূইয়া উপজেলার সামাসপুর গ্রামের হারুনের ছেলে হারেশ (২৯), পাসপোর্ট নং বিআর-০১৮১০০৩২।

দর্শনা জয়নগর ইমিগ্রেশন পুলিশের ইনচার্জ এসআই আব্দুল আলিম জানান, প্রথমে তিনজন ও পরে দুইজন যুবক ইমিগ্রেশন করার জন্য আসে। এ সময় তাদের কথাবার্তায় অসংলগ্নতা, নাম ঠিকানা ঠিকমতো না বলতে পারায় তাদেরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দামুড়হুদা থানায় সোপর্দ করা হয়।

দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, আটককৃত পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদে শেষে জানাগেছে, তারা সবাই রোহিঙ্গা। দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সময়ে নাম পরিচয় গোপন করে বাংলাদেশী পরিচয় ব্যবহার করে পাসপোর্ট করে ভারতে যাওয়ার সময় তাদেরকে আটক করা হয়।

ad