বাউফলে মা-ছেলের একসঙ্গে দাখিল পাশ

Bauphal, Mother-son, Dakhil, pass
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে পৃথক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মা ও ছেলে দাখিল পরীক্ষায় কৃতকার্য হয়েছেন। মায়ের নাম জেসমিন আক্তার আর ছেলের নাম সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া। মা পেয়েছেন জিপিএ- ৩.৬০ এবং ছেলে পেয়েছে জিপিএ- ৪.২৮।

জেসমিন আক্তারের দুই মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া সবার ছোট। তার স্বামীর নাম জাকারিয়া খান। তাদের বাড়ি উপজেলার কালিশুরী বন্দর এলাকায়।

তার বড় মেয়ে সাইয়েদা আক্তার প্রাণিবিদ্যা বিষয়ে অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও মেজো মেয়ে আফছা বেগম অর্থনীতি বিষয়ে অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

জেসমিন আক্তার ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত উপজেলার কালিশুরী ইউনিয়নের রাজাপুর ছালেহিয়া দাখিল মাদ্রাসায় নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে পড়াশুনা করেন। ওই মাদ্রাসা থেকে এ বছর দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতকার্য হন। পরীক্ষার কেন্দ্র ছিল কনকদিয়া স্যার সলিমুল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজ।

অপরদিকে, ছেলে সাইফুল্লাহ বিন জাকারিয়া একই উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের কেশবপুর ফজলুল হক আলিম মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতকার্য হন। পরীক্ষার কেন্দ্র ছিল কালিশুরী ডিগ্রী কলেজ।

জেসমিন আক্তার বলেন, প্রাথমিকের গণ্ডি পার হওয়ার আগেই বিয়ে হয়ে গেছে। স্বামীর সহযোগিতায় পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছি। আমি একজন উচ্চ শিক্ষিত মা হতে চাই।

রাজাপুর ছালেহিয়া দাখিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত সুপার মো. নুরুল ইসলাম বলেন, এ বছর তার মাদ্রাসা থেকে ২০ জন শিক্ষার্থী দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে মাত্র ৯ জন উত্তীর্ণ হয়েছে। এরমধ্যে জেসমিন আক্তার বয়স্কা নারী হয়েও অনেক ভালো ফলাফল করেছেন।

ad