বাবা-মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

child rape
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পরিবার বাড়িতে না থাকার সুযোগে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করেছে মাহবুব নামে এক প্রতিবেশী যুবক। ভিকটিম শিশুকে গুরুতর অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ধষর্ণের শিকার মেয়ের বাবা বাদী হয়ে শনিবার (৯ জুন) রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে গত বুধবার উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের মালতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে, এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত যুবক মাহবুব পলাতক রয়েছে। সে কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের মালতি গ্রামের প্রবাসী তায়েজ উদ্দীনের ছেলে।

ধর্ষণের শিক্ষার মেয়েটি স্থানীয় একটি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী বলে জানাগেছে।  তার বাবা পেশায় একজন কৃষক।

পুলিশ এবং মামলা সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন বুধবার ওই শিক্ষার্থীর পরিবার বাসায় ছিল না। অন্যদিকে মাহাবুবের মাও বাসায় ছিল না। এ সুযোগে মাহাবুব ওই ছাত্রীকে কবুতর দেয়ার কথা বলে তাদের ঘরে নিয়ে যায়। পরে সেখানে সে জোরপূর্বক শিশুটিকে ধর্ষণ করে।

পরে ধর্ষণের শিকার মেয়েটি কান্নাকাটি করলে বিষয়টি প্রকাশ পায়। পরে ধর্ষকের বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে। মীমাংসা ব্যর্থ হলে শিশুর বাবা মামলা দায়ের করেন।

কালিহাতী থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় শনিবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ঘটলাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ad