মনোহরদীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, গ্রেপ্তার ঘাতক

Rapist arrest
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: নরসিংদীর মনোহরদীতে পঞ্চম শ্রেণির স্কুলছাত্রী আউয়িলা আক্তারকে (১১) ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে সজল মিয়া (২০) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব।

রবিবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় র‌্যাব-১১ এর একটি দল সজল মিয়াকে তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে।

সজল মনোহরদী উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে। সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব-১১ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক শেখ বিল্লাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার বিকালে মনোহরদী উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের বীরগাঁও গ্রামের বাবু মিয়ার মেয়ে আউলিয়া আক্তার নানার বাড়িতে যাচ্ছিল। এ সময় সজল মিয়া তার পিছু নেয়। কিছুদূর যাওয়ার পর সজল তাকে জোড়পূর্বক একটি ক্ষেতের ভেতর তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় আউলিয়া চিৎকার দেয়ার চেষ্টা করলে সজল তাকে গলাটিপে হত্যা করে ক্ষেতের ভেতর লাশ লুকিয়ে রেখে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ওইদিনই স্কুলছাত্রীর বাবা বাবু মিয়া বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির বিরুদ্ধে মনোহরদী থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন এবং এর সাথে জড়িত অপরাধীকে গ্রেপ্তার করতে র‌্যাব-১১ মাঠে নামে। এই ধারাবাহিকতায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গত রবিবার র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল মনোহরদী উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘাতক সজল মিয়াকে আটক করে।

ad