সুন্দরবনে হরিণ শিকারের নেতৃত্বে জাপার কেন্দ্রীয় নেতা

Sathkhira
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: সুন্দরবনে হরিণ শিকারের অভিযোগে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সাত্তার মোড়লের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে শ্যামনগর থানায়। এসআই লিটন হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেছেন।

এদিকে, মঙ্গলবার (১০ জুলাই) সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে সাত্তার মোড়লকে গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানবন্ধনে বক্তারা সুন্দরবনের জীব বৈচিত্র ধ্বংসকারী সাত্তার মোড়লের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। একই সাথে তার সহযোগি ১৬ জনকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

এ সময় বক্তারা বলেন, অনেক বড় বড় সরকারি কর্মকর্তা ও আমলাদের ফ্রিজে সাত্তার মোড়লের দেয়া হরিণের মাংস আছে। অনেক সরকারি কর্মকর্তা সাত্তার মোড়লের নেতৃত্বে হরিণ শিকার উপভোগ করতে সুন্দরবনে যায়। গতকালের হরিণ শিকারের ঘটনায় যে তিনজন চোরা শিকারী ছিল তাদের মামলায় আসামী করা হয়নি। ওই হরিণ শিকারীসহ যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাতক্ষীরা সিটি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার, সাবেক ছাত্র নেতা হাফিজুর রহমান মাসুম, জাসদ নেতা ওবাইদুস সুলতান বাবলু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গতকাল সুন্দরবনে তিনটি হরিণ ও তিনটি অস্ত্রসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করে শ্যামনগর থানা পুলিশ। পরে এ ঘটনার নায়ক সাত্তার মোড়লকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। এরপর পুলিশের ভূমিকা নিয়ে সাতক্ষীরার সচেতন মহলে ব্যাপক সমালোচনা হয়।

ad