আমতলীতে অভিযোগকারীকে হুমকি বিদ্যালয় সভাপতির

AMTALI SANGBAD
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলী উপজেলার ছোট নীলগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় অভিযোগকারী ব্যক্তিকে হুমকি দিয়েছেন বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি।

সোমবার (৬ আগস্ট) আমতলী রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন অভিযোগকারী মিজানুর রহমান মুসুল্লী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মিজানুর রহমান বলেন, মোশাররফ হোসেন ২০১০ সালে উপজেলার ছোট নীলগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। বিদ্যালয়ে যোগদান করার পর থেকে বিভিন্নভাবে অনিয়ম করে আসছেন তিনি। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পরীক্ষার ফি’র নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, স্বজনপ্রীতি ও শিক্ষকদের টিউশন ফি’র টাকা আত্মসাত, রেজিস্ট্রেশন ফি আদায়, বেতন, বিভিন্ন চাঁদা ও প্রশংসাপত্র বিতরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে আত্মসাত করছে।

তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষক মোশাররেফ হোসেন অভিভাবক ও দাতা সদস্যদের না জানিয়ে গোপনে পকেট কমিটি করেছেন। এ অনিয়মের বিষয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করেন। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউএনও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আকমল হোসেনকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেয়। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে তদন্ত করতে যায়।

এ সময় বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম মৃধা তদন্ত কর্মকর্তার সামনে তাকে প্রকাশ্যে অভিযোগ তুলে নিতে হুমকি দেয়।বলে জানান তিনি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোশাররেফ হোসেন বলেন, অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।

বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আলহাজ নুরুল ইসলাম মৃধা মুঠোফোনে বলেন, আমি হুমকি দিলে থানায় মামলা করতে বলেন। আপনাদের কাছে গেলে কি হবে। আপনারা আমার কি করবেন। যা মন চায় তাই লেখেন।

মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আকমল হোসেন বলেন, তদন্তের সময় অভিযোগকারীর সাথে বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি নুরুল ইসলাম মৃধা অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছেন।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরোয়ার হোসেন বলেন, তদন্ত কর্মকর্তার সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ad