আমতলীতে ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিতদের সড়ক অবরোধ

Amtali, Chhatra League, deprived of posts, road blockade,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলীতে উপজেলা ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটিতে পদ বঞ্চিতরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। এতে কুয়াকাটা-বরিশাল মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন হাজার হাজার যাত্রী।

বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) বেলা ১১টায় থেকে তারা দুই ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতাদের অবরোধ ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

জানাগেছে, গত সোমবার রাতে আমতলী উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটি ঘোষণা করা হয়। জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক ও সাধারণ সম্পাদক তানভীর হোসাইন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে মাহবুবুল ইসলাম সভাপতি ও আবদুল্লাহ আল মামুন সবুজকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৪ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হয়।

এ কমিটিতে মো. মতিন খান ও অলি আহম্মেদকে সহ-সভাপতি করা হয়। তারা কাঙ্খিত পদ না পেয়ে কুয়াকাটা-বরিশাল মহাসড়কের আমতলী বাঁধঘাট এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। ভোগান্তিতে পড়ে কুয়াকাটা পর্যটনে আসা পর্যটকসহ হাজার হাজার যাত্রী। সড়ক অবরোধ করে যানজট সৃষ্টি করায় মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

পর্যটনে আসা নারী পর্যটক তামান্না, শিউলি, শিখারানী ও বর্না বলেন, সড়ক অবরোধ করে মানুষকে ভোগান্তি দিয়ে অধিকার আদায়ের ভাষা হতে পারে না। এটা অন্যায়। তারা প্রশাসনকে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।

আমতলী থানার ওসি মো. সহিদ উল্যাহ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অবরোধ ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়।

উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ মাহবুবুল ইসলাম বলেন, গুটি কয়েক মাদকসেবী ও অছাত্ররা সড়ক অবরোধ করে সাধারণ মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলেছে।

বরগুনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিক বলেন, যারা সড়ক অবরোধ করেছে তারা বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি। কাঙ্খিত পদ বঞ্চিত হয়ে এরা সড়ক অবরোধ করে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ করেছে। এদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ad