আমতলীতে স্কুলছাত্রীর গলায় ওড়না প্যাঁচানো মরদেহ উদ্ধার

Suicide
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলীতে মফিজ উদ্দিন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী তাসমিম আরা মিতুর মরদেহ ঘরের জানালার গ্রিলের সাথে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২ মে) জানালার গ্রিলের সাথে মিতুর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাওয়ার পর পুলিশে খবর দেয়ার পর তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

মিতু আমতলী বন্দর হোসাইনিয়া ফাজিল মাদ্রাসার লাইব্রেরিয়ান মো. শাহ আলম মিয়ার মেয়ে। সে গত বছর জেএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, মিতু সকালে জীব বিজ্ঞান প্রাইভেট পড়া শেষে পৌর শহরের ওয়াবদা এলাকার বাসায় ফিরে নিজের কক্ষে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। ওই কক্ষে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে প্রবেশ করার পর জানালার গ্রিলের সাথে মিতুর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাওয়া যায়।

মিতুর বাবা শাহ আলম বলেন, প্রাইভেট পড়ে বাসায় এসে কক্ষে ঢুকে দরজা বন্ধ করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে জানালার গ্রিলের সাথে ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। আমার মেয়ের আত্মহত্যার কারণ আমি এখনও জানি না।

আমতলী থানার ওসি মো. সহিদ উল্যাহ বলেন, মিতু কি কারণে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটন হবে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

ad