আমতলীতে হতদরিদ্র গৃহবধূর ঘর ভেঙে দিল সন্ত্রাসীরা!

barguna amtali
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলীতে হতদরিদ্র গৃহবধূ মনোয়ারা বেগমের নির্মাণাধীন বসত ঘর ভেঙে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এসময় সন্ত্রাসীরা প্রতিবন্ধি ও মহিলাসহ ১২ জনকে পিটিয়ে আহত করেছে।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) সকালে উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ৭ জনকে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল ও আমতলী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের খাস জমিতে মনোয়ারা বেগম বসত ঘর নির্মাণ করছিল। সকাল ৯টার দিকে একই গ্রামের রাজু খাঁন, নসু, শহীদুল, জয়নুদ্দিন, খালেক খাঁন ও আখতার হোসেনসহ ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসী মনোয়ারা বেগমের নির্মাণাধীন ঘর ভেঙে ফেলে। এ সময় মনোয়ারা বেগমসহ পরিবারের লোকজন বাধাঁ দিলে সন্ত্রাসীরা তাদের বেধরক পিটিয়ে আহত করেছে।

হতদরিদ্র মনোয়ারা বেগম কান্নাজনিত কন্ঠে বলেন “সরকার মোরে খাস জমি দেছে, হেই জমিতে মুই ঘর বানাইছি। মোরে ও মোর গুড়াগারা সন্ত্রাসীরা পিডাইয়্যা ঘর ভাইঙ্গ্যা হালাইছে, সে আরো বলেন মোর বোবা পোলাডারেও ওরা পিডাইছে”।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মো. শহিদ উল্লাহ মুঠোফোনে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ad