কেশবপুরে বিদ্যুৎ দেয়ার নামে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

jessore-map_ daily jagoran
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: যশোরের কেশবপুর উপজেলার সাতবাড়িয়া এলাকায় বিদ্যুৎ দেয়ার নামে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই এলাকায় কর্মরত এক ঠিকাদারের ভাগ্নে পরিচয় দিয়ে বিদ্যুৎ প্রত্যাশীদের সাথে প্রতারণা করে চলেছে।

জানাগেছে, সারাদেশের মতো কেশবপুর উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের জন্য দ্রুত লাইন নির্মাণের কাজ চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় সাতবাড়িয়া এলাকায় মেসার্স বিশ্বাস এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বৈদ্যুতিক লাইন নির্মাণ করছে।

সাতবাড়িয়া গ্রামের শেখপাড়ার মেহেদী নিজেকে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের স্বত্তাধিকারী মোস্তাফিজুর রহমান তুহিনের ভাগ্নে পরিচয় দিয়ে বিদ্যুৎ প্রত্যাশীদের সাথে প্রতারণ করে চলেছে।

মেহেদী দ্রুত বিদ্যুৎ পাইয়ে দেয়ার কথা বলে গ্রামের আলমগীর হোসেন, আব্দুস সালাম, নুরজাহান বেগম, মহিদুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, মির্জানগর গ্রামের আব্দুল ওহাব ও নাজিমের নেকট থেকে জনপ্রতি ৫ হাজার হতে ২০ হাজার টাকা করে নিয়েছে। মেহেদীকে চাহিদা অনুযায়ী টাকা না দেয়ায় চা বিক্রেতা আলমগীরকে মারপিট ও বিভিন্ন ব্যক্তিকে হয়রানি করছে।

ঠিকাদার মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন সাংবাদিকদের জানান, তার ওই এলাকায় মেহেদী নামে কোনো ভাগ্নে নেই।

এ ব্যাপারে মেহেদী টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করে সাংবাদিকদের বলেন, তিনি বকেয়া বৈদ্যুতিক বিল আদায়ে বিদ্যুৎ অফিসকে সহযোগীতা করায় তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

ad