গুরুদাসপুরে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করলো স্বামী

gurudaspur murder
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: নাটোরের গুরুদাসপুর হাজেরা বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার পাষন্ড স্বামী শফিকুল ইসলাম (৪২)। এ ঘটনায় ঘাতক শফিকুলকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৭ মে) সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের রাণীনগর গ্রামের এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় ওই গৃহবধূকে রক্ষার্থে এগিয়ে আসলে রোকেয়া বেগম নামের এক মহিলাকেও কুপিয়ে যখম করে রফিকুল। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রফিকুল রানি গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে। ছয় বছর আগে উপজেলার বেড়গঙ্গরামপুরের মৃত. জিকির প্রামাণিকের মেয়ে হাজেরার সাথে তার বিয়ে হয়। রফিকুল পেশায় সুপারি ব্যবসায়ী।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে রফিকুল নিজের বাড়িতেই তার স্ত্রী হাজেরা বেগমকে মারপিট শুরু করে। এ সময় হাজেরা বাড়ি থেকে বের হয়ে পালাতে গেলে রফিকুল ধাওয়া দিয়ে গ্রামের জামে মসজিদের কাছে তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে এলাপাথারিভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। হাজেরাকে রক্ষার্থে এগিয়ে আসলে রোকেয়া বেগম নামের এক মহিলাকেও কুপিয়ে যখম করে সে।

পরে রফিকুল হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি নিয়ে গ্রামের জামে মসজিদের দরজা জানালা বন্ধ করে ভিতরে বসে থাকেন। এসময় পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে মসজিদটি ঘিরে রাখে। এতে এলাকাবাসী মাগরিব, এশাসহ তারাবি নামায পড়তে পারেনি।

গুরুদাসপুর থানার এসআই সুব্রুত কুমার মাহাতো বলেন, কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়া হলে রাত ১০টার দিকে মসজিদের ভিতর থেকে বের হয় রফিকুল। তাকে আহত অবস্থায় নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

ad