চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন

Court
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের একটি হত্যা মামলায় একই পরিবারের তিনজনসহ পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় আট আসামীকে খালাস দেয়া হয়।

বুধবার (৮ আগস্ট) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ শওকত আলী এ রায় প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনসহ আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুরের এরফান আলী ওরফে টিপু (৫২), তার দুই ছেলে হামেদ (৩২), রুমেদ (২৯) এবং একই গ্রামের আবু বাক্কারের ছেলে আকালু (৩৫) ও তোহর আলীর ছেলে দবির (৩০)। এদের মধ্যে হামেদ ও রুমেদ পলাতক রয়েছেন।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর আঞ্জুমান আরা মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, ২০০৯ সালের ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় ভাগলপুরের আহাদুল ইসলাম ও তার সহযোগি আব্দুল হাকিম বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় অভিযুক্তরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের কুপিয়ে জখম করে। পরে তাদের হাসপাতালে নিয়ে গেলে আহাদুল ইসলাম মারা যান। ওই ঘটনায় আহাদুলের শ্বশুর শামসুল বাদী হয়ে পরদিন গোমস্তাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

তিনি জানান, গোমস্তাপুর থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবর হোসেন ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।  এরপর আজ এ রায় ঘোসণা করা হলো।

ad