ঝালকাঠির পোনাবালিয়া ইউপি নির্বাচন: বিএনপি প্রার্থীর ভোট বর্জন

jhalokathi
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: কেন্দ্র দখল, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া, ভোটারদের কাছ থেকে ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে নৌকা প্রতীকে সিল মারা ও সাধারণ ভোটারদের ভয়-ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ এনে ঝালকাঠি সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট বর্জন করেছে বিএনপি সমর্থীত প্রার্থী ওয়ারেচ আলী খান।

মঙ্গলবার (১৫ মে) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হলে এসব অভিযোগ এনে বেলা ১২টার দিকে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

একই সঙ্গে তিনি নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণের দাবি করেছেন রিটানিং কর্মকর্তার কাছে।

এদিকে, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আবুল বাশার খান বলেছেন, নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় দেখে ওয়ারেচ আলী খান মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছেন।

জানা যায়, সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হলে ৯টি কেন্দ্রেই নারী ও পুরুষ ভোটারদের ব্যপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। এতে ভোটকেন্দ্রগুলোতে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। এদের মধ্যে নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে শুরু করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ভোটার জানান, সকাল ৯টার পর থেকেই সরকারদলীয় লোকজন প্রভাব বিস্তার করে ভোটকেন্দ্র থেকে বিএনপির এজেন্ট বের করে দেয়। এছাড়াও সাধারণ ভোটারদের কাছ থেকে ব্যালট ছিনিয়ে নিয়ে নৌকা প্রতীকে সিল দেয়ার অভিযোগ করেন ভোটাররা।

এর আগে সীমানা জটিলতার কারণে দুই দফায় এ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। সব জটিলতা কাটিয়ে অবশেষে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় খুশি ছিল সাধারণ ভোটাররা।

রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, পোনাবালিয়া ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১১ হাজার ৪৭৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ হাজার ৯২০ এবং নারী ভোটার ৫ হাজার ৫৫৩ জন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৫ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১১ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৬ জন।

আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক নিয়ে আবুল বাশার খান, বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকে ওয়ারেচ আলী খান, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকে মো. নাসির উদ্দিন মৃধা। এছাড়াও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস প্রতীকে আবদুল ওয়াহেদ জোমাদ্দার ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রজনীগন্ধা প্রতীকে মো. আরিফুর রহমান সতন্ত্র পার্থী হিসেবে লড়ছেন এ নির্বাচনে।

এ বিষয়ে রির্টানিং কর্মকর্তা মো. শাহিন শরীফ বলেন, বিএনপি প্রার্থীর একটি লিথিত অভিযোগ পেয়েছি।

তবে নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোট সুষ্ঠু করতে বিজিবিসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্রচুর সদস্য মোতায়েন রয়েছে। কোথাও কোনো সমস্যা হয়নি।

ad