ঝিনাইদহে কালবৈশাখী ঝড়ে লন্ডভন্ড বির্স্তীর্ণ জনপদ

Jhenaidah, Kalbishakhi storm,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে কালবৈশাখী ঝড়ে বির্স্তীর্ণ জনপদ লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। বাড়িঘর, গাছপালা ও ক্ষেতের ফসল ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে প্রায় ৯ ঘন্টা বিদ্যুৎহীন অবস্থায় ছিল ঝিনাইদহ।

বৃহস্পতিবার (১০ মে) সকাল ৯টার দিকে বয়ে যাওয়া প্রচণ্ড ঝড়ে বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে যায় এবং গাছের ডাল ভেঙে বিদ্যুতের তার ছিড়ে যায় বলে জানিয়েছেন ঝিনাইদহ ওয়েষ্টজোন পাওয়ার ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানীর নির্বাহী প্রকৌশলী পরিতোষ কুমার বিশ্বাস।

তিনি জানান, গোটা জেলায় সকাল থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় সব ধরণের সেবা বাধাগ্রস্থ হয়। বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা নিরলসভাবে পরিশ্রম করে শহরের বিভিন্ন ফিডার বিকাল ৫টা পর্যন্ত চালু করলেও পল্লী বিদ্যুতের অধিকাংশ ফিডার বন্ধ রয়েছে। সেগুলো ঠিক করে লাইন চালু করতে বিকাল সাড়ে ৬টা লেগে যায়।

এদিকে, হরিণাকুন্ডু উপজেলার কিছু এলাকায় ঝড়-বৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। কুলবাড়ীয়া, শড়াতালা, বেলতালা, হরিশপুর, রামনগরসহ বিভিন্ন গ্রামে বজ্রপাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

কুলবাড়ীয়া গ্রামের জাফিরুল ইসলাম ও একই গ্রামের দিনমুজুর মহি উদ্দিন আহত হন। ষড়াতালা গ্রামের ইউপি সদস্য মো. নিজাম উদ্দিন মেম্বরের ঘরের উপর আম গাছ ভঙ্গে পড়ে ঘর ভেঙে যায়। এ সময় ঘরের ইট পড়ে আহত হন পুটে (৫৫) নামে এক ব্যক্তি।

ষড়াতলা গ্রামের বহু ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কালবৈশাখী ঝড়ে সড়কের ওপরে গাছপালা ভেঙে পড়ে। সেগুলো সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়।

ad