টাঙ্গাইলের ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বেহাল দশা

tangail
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারটি নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের কর্মকর্তা-কর্মচারী সূত্রে জানা যায়, মেডিকেল সেন্টারের ছাদ দিয়ে পানি পড়ে, দেয়ালগুলোতে জমে আছে শেওলা।  তাছাড়া সেন্টারের প্রত্যেকটি দেয়ালের রং খসে পড়ছে। এসব বিষয়ে একাধিকবার লিখিত ও মৌখিকভাবে ইঞ্জিনিয়ারিং অফিসকে জানালেও তা সমাধানে কোনো উদ্যেগই নিচ্ছে না সংশ্লিষ্ট বিভাগ। এতে করে দিন দিন বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটির।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপক ড. এএসএম সাইফুল্লাহ বলেন, এ রকম পরিবেশে ওষুধের সাথে বিভিন্ন অণুজীবের বিষক্রিয়া ঘটে। যাতে ওষুধের কার্যকরিতা ও গুনাগুণ নষ্ট হচ্ছে। এছাড়াও স্বাস্থ্য কেন্দ্রটির সাথে দায়িত্বরতদের স্বাস্থ্যহানি ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি চীফ মেডিকেল অফিসার ডা. কাওসার আহমেদ বলেন, ২০১৬ সালের শুরুতেই ছাদ সংস্কারের কথা জানালে ইঞ্জিনিয়ারিং অফিস তা সংস্কার করেন। কিন্তু এরপরেও ছাদ দিয়ে পানি পড়ে। পরবর্তীতে একই সালের আগষ্টে আরেকটি আবেদন করা হয় এবং তাদের বারবার জানানো হলেও এখন পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

অভিযোগ সম্পর্কে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ভবনটি অনেক পুরাতন।  আবেদনের ভিত্তিতে আমরা একটি কক্ষ প্যাথলজি সামগ্রী রাখার জন্য সংস্কার ও রং করার সিদ্বান্ত নিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ বিভাগে ফাইলটি পাঠিয়েছি। কিন্তু এখনও তা পাশ হয়ে আসেনি। অনুমোদন পাওয়া গেলে দ্রুত কাজ করা হবে।

ad