দিনাজপুরে দুই এসআই’র হুমকীতে নিরাপত্তাহীনতায় এক পরিবার

Dinajpur Press
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ‘রাখো তোমার মামলা, পুলিশ কি করতে পারে টের পাবে’ দিনাজপুর কোতয়ালী থানার এসআই বিপ্লব কান্তি এবং এসআই মো. আজগরের এমন হুমকীতে অতিষ্ঠ হয়ে জীবন ও সামাজিক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে একটি পরিবারের সদস্যরা।

মঙ্গলবার (৩০ মে) সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ওই পরিবার।

এ সময় অর্থলোভি ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার ষড়যন্ত্রের হাত থেকে বাঁচানোর জন্যে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ এবং তাদের কঠোর শাস্তির দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশী নির্যাতনের স্বীকার মো. নাজমুল হোসেনের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কমল খালকো।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সদর উপজেলার উত্তর গোসাইপুর খালপাড়ার এলাকার তাদের ভোগদখলীয় ৯ একর সম্পত্তি ভূমিদস্যু ফরিদ কাদেরী, আব্দুস সালাম কাদেরী, সালাউদ্দীন কাদেরী এবং মোক্তার হোসেন গংরা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। এজন্য তারা ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে দিয়ে তাকে মিথ্যা মাদক মামলায় ফাঁসানোর হুমকীসহ বিভিন্নভাবে হয়রানী করছে। পুলিশের ওই দুই কর্মকর্তা সময়ে অসময়ে তাদের বাড়িতে গিয়ে জমি ছেড়ে দিতে বলে অন্যথায় মামলায় ফাঁসিয়ে জেল খাটাবে বলে হুমকী দেয়।

সাংবাদিকদের তিনি জানান, গত ২৮ মে এসআই আজগর তাদে বাড়ি গিয়ে মামলা তুলে নিতে বলেন। এ সময় তার মা মামলা চলমানের কথা বললে এসআই আজগর বলেন,‘রাখো তোমার মামলা পুলিশ কি করতে পারে টের পাবে।’

সংবাদ সম্মেলনে তারা জানমাল, সম্পদ ও সামাজিক নিরাপত্তা চেয়ে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ দাবি করেন।

এছ্ড়াও তারা বিষয়টি অবগতির জন্যে জাতীয় মানবাধিকার সংস্থার চেয়ারম্যান, আইজিপি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে অনুলিপি প্রেরণ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নাজমুল হোসেন নাজু, সুমন মিয়া, মো. শাহজাহান, মো. নাজমুল হোসেন ও তারা মিয়া প্রমুখ।

ad