নড়াইলে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, ২০ বাড়িঘর ভাঙচুর

Narail Map
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: নড়াইল সদর উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় হামলা পাল্টা হামলায় কমপক্ষে ২০টি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) ভোরে উপজেলার আমাদা গ্রাম ও কামালপ্রতাপ গ্রামের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানাগেছে, ভোরে আমাদা গ্রামের কাশেম আলী খান গ্রুপের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষ কামালপ্রতাপ গ্রামের আলী আহম্মেদ খানের পক্ষের সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালায়।  পরে কামালপ্রতাপ গ্রামের লোকজন একত্র হয়ে আমাদা গ্রামে হামলা চালায়।

এ সময় আমাদা গ্রামের ফেদু মল্লিক, জুলাই মল্লিক, আলা মল্লিক, বীরু মল্লিক, বিষু মল্লিক, আব্দুল হামিদ মল্লিক এবং কামালপ্রতাপ গ্রামের নাজমুল মল্লিক, শরিফুল মল্লিক, মাজহারুল ইসলাম, রশিদ মল্লিক, ইদ্রিস মল্লিক, মন্টু মল্লিক, তারিকুল মল্লিক, মুস্তাক মল্লিকসহ কমপক্ষে ২০টি বাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

এ সময় হামলাকারীরা বাড়ির মূল্যবান জিনিসপত্র ভাঙচুর ও লুটপাট করে নিয়ে যায় বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, আমাদা গ্রামের কাশেম আলী খা ও আলী আহম্মেদ খান গ্রুপের মধ্যে সামাজিক দ্বন্দ্ব নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ ঘটনার জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

ad