নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন ১৯ এপ্রিল

Narail-Photo
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন আগামী ১৯ এপ্রিল নির্ধারণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, মেয়াদ পেরিয়ে গেলেও ছাত্রলীগের সম্মেলন না হওয়ায় অনেকটা ঝিমিয়ে পড়া ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা শুরু হয়েছে। পদ প্রত্যাশীরাও গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে শুরু করে দিয়েছেন দৌড়-ঝাপ। প্রার্থীরা ধর্না দিচ্ছেন নেতা-কর্মীদের কাছে। সম্মেলন সফল করতে কর্মীরা শহরে আনন্দ মিছিল বের করছে নিজ নিজ প্রার্থীর পক্ষে।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, ২০১৪ সালের ২৩ নভেম্বর নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।  ওই সম্মেলনে তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে সভাপতি এবং শেখ আশরাফুজ্জামান মুকুলকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি ঘোষণা করা হয়। বর্তমান কমিটির মেয়াদ প্রায় সাড়ে ৩ বছর চলছে। এ কমিটি নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ছাড়া অন্য কোন উপজেলা বা পৌর কমিটি গঠন করতে পারেনি রাজনৈতিক জটিলতার কারণে।

একটি সূত্র জানায়, সভাপতি পদে প্রার্থী হচ্ছেন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ আশরাফুজ্জামান মুকুল, সহ-সভাপতি নিলয় রায় বাঁধন, সহ-সভাপতি শেখ হাবিবুল্লাহ হোসেন বিপ্লব, সহ-সভাপতি সজিব বিশ্বাস, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল শাহারিয়ার মিম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান বাপ্পি এবং নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশ।

সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হচ্ছেন বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম বাপ্পি ও আব্দুল্লাহ আল মামুন রাব্বি।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী অবিবাহিত, বয়স ২৯ এবং ছাত্র হতে হবে ছাত্রলীগের সদস্য হতে গেলে। প্রার্থীরা ছাত্রত্ব দেখে ছাত্রলীগের সভাপতি সম্পাদক নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।

সভাপতি প্রার্থী ও নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশ বলেন, আমি কলেজ ছাত্রলীগের দায়িত্ব পালন করছি অত্যন্ত সুনামের সাথে। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং জেলা ও উপজেলার নেতা-কর্মীদের সাথে যোগাযোগ রাখছি। আশা করি সভাপতি হতে পারব।

সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ও জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম বাপ্পি বলেন, সংগঠনের জন্য কাজ করছি ছাত্রদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে।  আগামী সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদি আমি।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল মাহমুদ তুফান এবং সাধারন সম্পাদক শেখ আশরাফুজ্জামান মুকুলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা ফোন রিসিভ করেনি।

ad