পাটগ্রামে হাতকড়াসহ পালাতক আসামীর আত্মসমর্পণ

lalmonirhat
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের পাটগ্রামে হাতকড়াসহ পালিয়ে যাওয়া মাদক ব্যবসায়ী লিটন পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। এ ঘটনায় তার বোন মুন্নি ও স্ত্রী রজিনা বেগমকেও আটক করেছে পুলিশ।

এর আগে, লিটনকে পালিয়ে যাওয়ার সহযোগীতা করায় গত বুধবার রাতে তার মা তহিরন বেগম ও তার বোন নাহিরন আক্তারকে আটক করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) রাতে পাটগ্রাম থানা পুলিশের কাছে হাতকড়াসহ আত্মসমর্পণ করে লিটন। আটককৃতদের শুক্রবার (১৬ জুন) আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাউরা ইউপির ১নং ওয়ার্ড সদস্য আসাদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার পুলিশ লিটনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী ও তার বোনকে আটক করে। এ খবর শুনেই লিটন বাউরা ইউনিয়ন আনসার ভিডিপির সদস্য ও বাউরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের মাধ্যমে পুলিশের নিকট আত্মসমর্পণ করে।

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, মাদক ব্যবসায়ি হিসেবে পরিচিত মতিয়ার রহমান ওরফে গুলি মতিয়ারের ছেলে লিটন। মতিয়ারের পরিবারটি প্রায় ১ যুগ ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। বিভিন্ন সময় থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে আবার ছাড়াও পেয়েছে।

এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হালিম জানান, এ ঘটনায় লিটনসহ মোট পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। লিটনকে মাদকদ্রব্য আইনে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আর তার স্ত্রী, বোন ও মাকে পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া ও আসামী পালিয়ে যাওয়ায় সহযোগীতা করায় কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ad