পিরোজপুরে ধর্ষণে বাধা দেয়ায় শিশুকে হত্যা

child rape
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: পিরোজপুরের কাউখালীতে ধর্ষণ করতে না পেরে এক শিশুকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পারভেজ মহাজন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ সোহেল মহাজন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

সোমবার (৩০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার দাশেরকাঠী খাল থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিশুর দাশেরকাঠী গ্রামের হিরু মহাজনের মেয়ে। অভিযুক্ত পারভেজ একই গ্রামের ফোরকান মহাজনের ছেলে।

জানা যায়, সোমবার দুপুরে কালবৈশাখী ঝড়ের সময় নিহত শিশু ও তার বড় বোন মিলে আম কুড়াতে যায়। আম কুড়ানো শেষ হলে শিশুটির বড় বোন বাড়ি ফিরলেও সে আরেকটি স্থানে আম কুড়াতে যায়। পরে বাড়ি ফেরার পথে পারভেজ ওই শিশুটিকে তুলে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

এতে বাধা দেয়ায় পারভেজ তাকে শ্বসরোধ করে হত্যা করে দাশেরকাঠী খালে লাশ ফেলে রাখে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে না পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ সন্ধ্যায় খাল থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

কাউখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের মা পারভেজ ও সোহেল নামে দুইজনকে আসামী করে মামলা দারে করেছেন। মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত সোহেলকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। পারভেজকে আটকের চেষ্টা চলছে।

ad