পীরগঞ্জে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

Pirganj
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও পল্লী বিদ্যুৎ সমতির আওতায় পীরগঞ্জ জোনাল অফিসের এক শ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারীর প্রত্যক্ষ সহায়তায় এলাকায় অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করে একটি চক্র লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পীরগঞ্জ জোনাল অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার বরাবর উপজেলার বীরহলী গ্রামের আতারু মোহাম্মদের ছেলে আহাল আলী স্বাক্ষরিত এক অভিযোগপত্র থেকে এ তথ্য জানাগেছে।

গতকাল দেয়া ওই অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, পীরগঞ্জ জোনাল অফিসের পিসিএম সারওয়ার হোসেন ও ইলেক্ট্রিশিয়ান আনসারুল ইসলাম বীরহলী গ্রামের কমপক্ষে ৫০টি বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করেন যার কোনোটিতেই মিটার নাই। উক্ত এলাকায় সেচ কাজের জন্য স্থাপিত বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের গভীর নলকুপের ( পি-৬২) বিদ্যুৎ সংযোগ হতে আনসারুল ইসলাম এসব সংযোগ দিচ্ছেন।

আনসারুল ইসলাম ও সারওয়ার হোসেন প্রতিটি সংযোগ থেকে প্রতি মাসে ৫’শ থেকে ১ হাজার টাকা পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিল বাবদ গ্রহণ করছেন। এছাড়াও যার বাড়িতে অটো চার্জার ভ্যান বা রিক্সা রয়েছে তাদের কাছ থেকে প্রতি মাসে ৩ হাজার থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা বিদ্যুৎ বিল গ্রহণ করছেন।

এ বিষয়ে ডিজিএম আব্দুল কুদ্দুস বলেন, আমি নতুন এসেছি।এখনো এলাকা চিনি না।অফিস সম্পর্কেও জানা হয়নি।দেখি আমি খোঁজ নিচ্ছি।

বরেন্দ্র বহুমূখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সহকারী প্রকৌশলী খাইরুল ইসলাম বলেন, আনসারুল ইসলাম আমাদের পি-৬২ গভীর নলকূপের অপারেটর।  সে অবৈধ সংযোগ নিয়েছে কিনা জানি না। আমি খোঁজ নিচ্ছি।

ad