প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে ছুরিকাঘাত

Mymensingh
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ময়মনসিংহে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সুমাইয়া আক্তার সিনথি (১৪) নামের এক ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত করেছে সাজ্জাদ (২০) নামে এক বখাটে। এর আগে প্রতিবাদ করায় ওই ছাত্রীর ছোট ভাইকেও পিটিয়ে জখম করা হয়। তাদের দু’জনকেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে নগরীর বাঘমারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সুমাইয়া নগরীর মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। তার ছোট ভাই কাউসার আহমেদকেও একই বিদ্যালয়ের ছাত্র।

সিনথির পিতা ফারুক আহমেদ অভিযোগ করেন, বাঘমারা এলাকার ইউসুফ মিয়ার বখাটে সন্তান সাজ্জাদ দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছে। একাধিকবার তাকে শাসন করার পরও সে শোনেনি। গতকাল দুপুরে সিনথি প্রাইভেট শেষ করে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় আগে থেকেই ওঁৎ পেতে থাকা বখাটে সাজ্জাদ তার পথরোধ করে ওড়না ধরে টান দেয়। এ সময় কাউসার বাধা দিলে তাকে পিটিয়ে জখম করে পালিয়ে যায় সাজ্জাদ।

তিনি জানান, পরে সিনথিকে নিয়ে অভিযোগ করে ফেরার পথে সাজ্জাদ দুই হাতে দুটি ছুরি নিয়ে পিছন দিকে সিনথিকে ছুরিকাঘাত করে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।  রক্তাক্ত অবস্থায় মেয়েকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাকে কয়েক ব্যাগ রক্ত দেয়া হয়েছে।

মমেক হাসপাতালের সার্জারি ইউনিট-২ এর সহকারি অধ্যাপক ডা. মনির হোসেন ভূইয়া জানান, সিনথির সফল অস্ত্রপচার হয়েছে। তবে এখনো জ্ঞান ফিরেনি।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমরা রাতেই জেনেছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে হাসপাতালে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। ঘটনা তদন্তে কাজ চলছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

ad