বগুড়ায় মায়ের ওপর অভিমান করে মেয়ের আত্মহত্যা

বিষপানে আত্মহত্যা
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বগুড়ার ধুনটে মায়ের ওপর অভিমান করে অনামিকা খাতুন (১৩) নামের এক স্কুলছাত্রী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার (৮ মে) পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

নিহত স্কুলছাত্রী মথুরাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে এবং ছাতিয়ানি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার বিকাল ৪টায় অনামিকা খাতুন বিদ্যালয় ছুটির পর বাড়িতে যেতে বিলম্ব করে। এ বিষয় নিয়ে তার মা ডলি খাতুন তাকে বকাঝকা করেন। এতে মায়ের ওপর অভিমান করে বিকাল ৫টায় অনামিকা বিষপান করে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে স্থানীয় এক গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাতে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম বলেন, হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলেই প্রকৃত রহস্য উদঘাটন হবে।

ad