বাউফলের আবুল হত্যা, ওসিকে মামলা নেয়ার নির্দেশ আদালতের

Bauphal Phot
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফলের নাজিরপুর ইউনিয়নের বড় ডালিমা গ্রামের কৃষক আবুল হোসেন (৬০) হত্যার ঘটনায় ওসিকে মামলা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৯ আগষ্ট) পটুয়াখালীর জ্যেষ্ঠ জুডিশিয়াল ২য় আদালতের বিচারক ফাইজুর রহমান নিহতের স্ত্রী মোসা. আলেয়া বেগমের একটি নালিশি পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে এ নির্দেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ওই গ্রামের আবুল হোসেনের সঙ্গে আলমগীর প্যাদা ও রাশেদুল ইসলামের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ১৫ জুলাই দুপুরে আলমগীর ও রাশেদুলের নেতৃত্বে কয়েকজন আবুল হোসেনকে পিটিয়ে আহত করে।

পরে তাকে তার স্বজনেরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যেতে চাইলে প্রতিপক্ষের লোকজন বাধা দেয়। এরপর তার অবস্থার অবনতি হলে ১৯ মার্চ বাউফল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এরপর ২১ জুলাই উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২২ জুলাই বিকালে আবুল হোসেন মারা যান।

নিহত আবুল হোসেনের স্ত্রী আলেয়া বেগম অভিযোগ করেন, আমার স্বামী মারা যাওয়ার পরের দিন আমি বাউফল থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এরপর আমি নিরুপায় হয়ে বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) পটুয়াখালী আদালতে একটি নালিশি পিটিশন দায়ের করি। আদালত মামলাটি গ্রহণের জন্য বাউফল থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে বাউফল থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, শুনেছি আবুল হোসেনের মৃত্যুর ঘটনায় শাহবাগ থানায় মামলা হয়েছে। ওই থানার পুলিশ তার ময়নাতদন্ত করেছেন। এ কারণে বাউফল থানায় মামলা নেয়া হয়নি। এখন জানলাম তার স্ত্রী (আবুল হোসেন) আদালতে মামলা করেছেন। আদালত সেই মামলা থানায় রুজু করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, তবে এখন পর্যন্ত আদেশের কাগজপত্র হাতে পাইনি। পেলে সঙ্গে সঙ্গে মামলা রুজু করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ad