বাউফলের ইউএনওর ক্লোন নম্বর থেকে চাঁদা দাবি

patuakhali map
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মোবাইল নম্বর থেকে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করা হয়েছে। একটি প্রতারক চক্র তার নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি করছে। এ ব্যাপারে বাউফল থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) এএফএম আবু সুফিয়ান স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, গ্রামীনফোনের ওই নম্বরটি একটি কর্পোরেট সীম কার্ড। প্রায় দুই বছর ধরে ব্যবহার করা হচ্ছে।

পূর্বের ইউএনও মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান নম্বরটি ব্যবহার করতেন। সম্প্রতি তিনি পদোন্নতি নিয়ে বদলি হয়ে যাওয়ার পর থেকে নম্বরটি তিনি ব্যবহার করছেন।

বুধবার (৯ মে) দুপুর সোয়া ১২টার সময় দশমিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সিএ শাহাবুদ্দিন প্রথমে তাকে ফোন করে এ বিষয়টি অবহিত করেন। তার ওই নম্বর থেকে ফোন করে শাহাবুদ্দিনের কাছে ১৫ হাজার টাকা চাওয়া হয়েছে।

পরে আবার ৫০ হাজার টাকা চেয়ে তাকে তিনবার ফোন দেয়া হয়। এর অল্প সময় পরই আমতলী ইউএনওর কার্যালয়ের সহকারী প্রোগ্রামার মো. ইমরান ও বাউফল ইউএনওর কার্যালয়ের সাবেক অফিস সুপার শাহ আলম ফোন করে টাকা চাওয়ার বিষয়টি অবহিত করেন। মো. ইমরান এর আগে বাউফলে চাকরি করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) এএফএম আবু সুফিয়ান গ্রামীনফোনের ১২১ নম্বরে কল করে বিষয়টি অবহিত করলে সেখান থেকে তাকে স্থানীয় কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করতে বলা হয়। কিন্তু বাউফলে বর্তমানে এ সার্ভিস চালু না থাকায় তিনি ঘটনা উল্লেখ করে বাউফল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

ad