বাউফলে জুয়ার বোর্ড থেকে আটক ব্যাংক কর্মকর্তাকে ছেড়ে বিপাকে পুলিশ

Bauphal
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: জুয়ার বোর্ড থেকে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে আটকের পর টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দিয়ে বিপাকে পড়েছে পটুয়াখালীর বাউফল থানার দুই এসআই। ওই ব্যাংক কর্মকর্তা  নিজেকে হেনস্থার অভিযোগ এনে দুই এসআইয়ের বিরুদ্ধে বাউফলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগকারীরর নাম সফিউল্লাহ। তিনি সোনালী ব্যাংক বাউফল শাখার কর্মকর্তা। অপরদিকে, অভিযুক্তরা হলেন- বাউফল থানার এএসআই নাসির উদ্দিন ও এএসআই কামাল হোসেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার (৩১মে) সন্ধ্যায় এএসআই নাসির উদ্দিন ও কামাল হোসেনের নেতৃত্বে কালাইয়া ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গুচ্ছগ্রামে অভিযান চালায় পুলিশের একটি টিম। তখন একটি ঘরের মধ্যে জুয়ার আসর থেকে চারজনকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশ। এ সময় পুলিশ আটককৃতদের উত্তম মাধ্যম দেয়।

আটককৃতদের মধ্যে সফিউল্লাহ নামের একজন নিজেকে পুলিশের কাছে ব্যাংক কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেন। পরে তাদের থানায় কিংবা ভ্রাম্যমাণ আদালতে না নিয়ে গভীর রাতে ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে রফাদফা করে আটককৃতদের ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এ ঘটনার পর রবিবার (৩ জুন) সফিউল্লাহ নিজেকে হেনস্থা, মারধর ও পকেট  থেকে ৬০ হাজার টাকা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ এনে দুই এএসআইয়ের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।  অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা সফিউল্লাহ উল্লেখ করেন, তিনি  নির্দোষ, তাকে অকারণে অপমান-অপদস্ত করা হয়েছে।

বাউফল থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, ২ এএসআই অন্যায় করলে অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে।

এ প্রসঙ্গে বাউফলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিজুস চন্দ্র দে সাংবাদিকদের বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি এবং উভয়পক্ষকে ডাকা হয়েছে।

ad