ভণ্ড পীরের আস্তানা পুড়িয়ে দিল জনতা

Jesuit saint, ,shebang burned, people,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে ভণ্ডপীর জয়গুরু মনির শাহ’র হেরাবন নামক আস্তানা উচ্ছেদের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল শেষে পুরো আস্তানা পুড়িয়ে দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও মুসল্লিরা।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) বিকালে উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের ফুলানিরসিট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় মুসল্লিরা মনির শাহ’র আস্তানা চিরতরে সরানোর দাবিতে মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন। প্রতিবাদ সভা শেষে স্থানীয় মুসল্লিরা এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে পুরো আস্তানায় আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেন। এ সময় আলেমরা ভণ্ড পীর জয়গুরু মনির শাহকে গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবি জানান।

বিশিষ্ট আলেম ও ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা আশেকে মোস্তফার সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন জাহাঙ্গীর আলম খোকন, মাও. মো. সেকান্দরসহ এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমান, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধি।

জানাগেছে, কথিত ভণ্ড পীর জয়গুরু মনির শাহ নামক ব্যক্তিকে ২০০৬ সনের মাঝামাঝি সময়ে স্থানীয় আবু তালেবের মা জমিলা খাতুন ৭ শতাংশ জমি লিখে দেন। পরে ওই জমিতে জয়গুরু তার আস্তানা স্থাপন করে ধীরে ধীরে গভীর গজারী বন কেটে অবৈধভাবে বন বিভাগের প্রায় বার বিঘা জমি জবর দখল করে আস্তানা গড়ে তোলেন। মনির শাহ নিজেকে মানব ধর্মের প্রবর্তক দাবি করে নিজের মনগড়া ধর্মীয় মতবাদ প্রচার করে আসছিলেন।

স্থানীয় মুসল্লিরা ইতোপূর্বে একাধিকবার ভণ্ডপীরের আস্তানা সরানোর দাবি করলেও প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় মনির শাহ তার আস্তানা টিকিয়ে রাখেন এবং বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ চালাতে থাকেন।

সম্প্রতি বন বিভাগের লোকজন জয়গুরু মনির শাহ’র আস্তানা ভেঙে বন বিভাগের জমি পুনরুদ্ধার করে।

ad