মোরেলগঞ্জে বাবাকে জবাই করে হত্যা করল ছেলে

Morrelgonj-photo
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পারিবারিক কলহের জের ধরে ইউনুছ হাওলাদার নামের বৃদ্ধকে জবাই করে হত্যা করেছে তারই পাষণ্ড ছেলে।

শনিবার (১১ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার নিশাণবাড়িয়া ইউনিয়নের আলীর বাজার এলাকায় এ লোমহর্ষক ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই পুলিশ ঘাতক ছেলে লাল মিয়া হওলাদারকে (৫০) গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। গ্রেপ্তারের পর পুলিশের কাছে প্রাথমিক জবানবন্দীতে লাল মিয়া তার বাবাকে জবাই করে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছে।

ঘাতক লাল মিয়া তার জবানবন্দীতে বলেছে, পারিবারিক কলহের এক পর্যায় প্রথম পক্ষের স্ত্রী বিউটি বেগমের সাথে লাল মিয়ার বৃদ্ধা মা রওশন আরা বেগমের (৬৫) সাথে ঝগড়া হয়। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে বিউটি বেগমের ভাই (প্রথম পক্ষের শ্যালক) পলাশ শিকদার তার বোনের পক্ষ নিয়ে বাবা ইউনুছ হাওলাদরের সামনেই লাল মিয়ার বৃদ্ধা মাকে মারপিট করে। এতে মা রওশন আরা বেগম গুরুতর আহত হন।

বাবা ইউনুছ হাওলাদারের সামনে মাকে এভাবে মারপিট করার পরও কোনো প্রতিবাদ না করায় ক্ষিপ্ত হয়ে লাল মিয়া তার বাবাকে জবাই করে হত্যা করেছে।

এদিকে নিহতের পরিবার জানিয়েছে, লাল মিয়া তার দুই ছেলে ও এক মেয়েকে রেখে দ্বিতীয় বিয়ে করে। আর এ দ্বিতীয় বিয়ে তার বাবা ইউনুছ হাওলাদার মেনে নিতে না পারায় এই নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরেই বৃদ্ধ বাবাকে ধারালো দা দিয়ে জবাই করে হত্যা করে লাল মিয়া।

মোরেলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) ঠাকুরদাশ মন্ডল জানিয়েছেন, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘাতক ছেলে লাল মিয়াকে স্থানীয়দের সহায়তায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্যে বাগেরহাট মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ad