ময়মনসিংহে বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

Mymensingh, member, house, vandalism,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় মৃত জালাল উদ্দিন মেম্বারের বাড়িতে ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জালাল উদ্দিন মেম্বারের স্ত্রী লিপি আক্তার বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় দুইজনের নামে একটি মামলা করেছেন। যদিও পুলিশ বলছে, বাদীপক্ষই তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে।

বৃহস্পতিবার (৫ জুলাই) স্থানীয় চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে শালিসে মীমাংসা করার কথা থাকলে বাদীপক্ষ উপস্থিত না থাকায় বিষয়টির মীমাংসা হয়নি।

এর আগে গত ২৯ জুন বিকালে সদর উপজেলার চর ঈশ্বরদিয়া ইউনিয়নের ঈশ্বরদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মামলার আসামী আজহারুল চর ঈশ্বরদিয়া গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে এবং রাসেল একই এলাকার দিনা মিয়ার ছেলে।

জালাল উদ্দিন মেম্বারের স্ত্রী লিপি আক্তার জানান, আমার স্বামী ঈশ্বরদিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার থাকা অবস্থায় গত বছরের ৪ নভেম্বর মারা যান। এ সুযোগে আমার দেবর ও ভাসুররা আমাকে এখান থেকে তাড়াতে উঠে পড়ে লেগেছে। এরই জেরে গত ২৯ জুন আমার ছেলে লিপচনের সাথে মোবাইল বিক্রির টাকার লেনদেনকে কেন্দ্র করে নেশাখোর রাসেল ঝগড়া করে।

তিনি জানান, ঝগড়া করে বাড়িতে ফিরে আজহারুলের প্রশ্রয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার বাড়িতে ভাঙচুর করে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ ৩০ হাজার টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায় তারা। এ সময় আমাকে একা পেয়ে মারধর করে। পরে এলাকাবাসীর চাপে স্থানীয় গ্রাম্য শালিসে মীমাংসা করার আশ্বাসে মামলা করিনি।

Mymensingh, member, house, vandalism,

লিপি আক্তার জানান, পরে কোনো মামলা না থাকা সত্বেও পুলিশ আমার ছেলেকে গ্রেপ্তার করে। তার জামিনে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

কি কারণে পুলিশ তার ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আসামীপক্ষ ষড়যন্ত্র করে আমার ছেলে গ্রেপ্তার করিয়েছে।

হামলার ঘটনার সময় উপস্থিত অনেকেই জানিয়েছেন, আজহারুল ও রাসেল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে। ঘরের থাকা টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায় হামলাকারীরা। তবে পুলিশ কেন বলছে নিজের ঘরে নিজেরাই ভাঙচুর করেছে- এমন কথার কারণ বুঝতে পারছেন না উপস্থিত থাকা লোকেরা।

৬নং চর ঈশ্বরদিয়ার চেয়ারম্যান মোর্শেদুল আলম জাহাঙ্গীর বলেন, রাসেল ও আজহারুলের বিষয়ে এর আগেও একাধিক শালিস করেছি। তারা ইয়াবা সেবন ও ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িত আছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নিরুপম নাগ বলেন, বাদীপক্ষই তাদের বাড়িঘর ভাঙচুর করে এখন আসামীপক্ষকে দোষী করছে।

ad