শেরপুরে র‌্যাব সদৃশ পোশাক পরায় বিপাকে চা বিক্রেতা

Sherpur, RAB, similarity, dress, case
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদৃশ কালো পোশাক পরে গণসমাবেশে যোগ দেয়ায় এক যুবকসহ তিনজনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনকে আসামী করে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ মামলা দায়ের করেছে।

সোমবার (২ এপ্রিল) দুপুরে এ মামলার অজ্ঞাতনামা এক আসামীকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

মামলার অন্যান্য আসামীরা হলো- উপজেলা পৌরশহরের কান্দা ছিটপাড়া মহল্লার ইন্না শেখের ছেলে চা বিক্রেতা বাদল শেখ, গড়কান্দা মহল্লার আব্দুল হান্নানের ছেলে চলতি এইচএসসি পরীক্ষার্থী অমিত হাসান ও নামা ছিটপাড়া মহল্লার মনসুর আলীর ছেলে সারোয়ার হোসেন।

এর আগে গত রবিবার রাতে তারাগঞ্জ উত্তর বাজার এলাকার মাহমুদুর রহমানের ছেলে আলমগীর কবির মিথুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত মিথুন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যকরী কমিটির সদস্য কৃষিবিদ বদিউজ্জামান বাদশার সমন্ধির ছেলে বলে জানাগেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, গত ২৮ মার্চ তারাগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ছিল মুক্তিযোদ্ধা জনতা মঞ্চের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গণসমাবেশ। এ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর-২ (নকলা- নালিতাবাড়ী) আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বদিউজ্জামান বাদশা।

এ সমাবেশে চা বিক্রেতা বাদল শেখ র‌্যাব সদৃশ্য পোশাক ও খেলনার একটি অস্ত্র নিয়ে সমাবেশে যায়। সমাবেশ স্থলে তার সাথে সেলফি তুলে আনন্দ করে আরও কয়েক যুবক। একই সাথে গণসমাবেশ কভারেজ করতে আকাশে ড্রোন ক্যামেরা উড়ানো হয়।

এ ঘটনায় ৩১ মার্চ নালিতাবাড়ী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) নূর উদ্দিন বাদী হয়ে বাদলসহ তিন যুবকের নামে এবং আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মামলা দায়ের করে। পরে ১ এপ্রিল রাতে পুলিশ আলমগীর কবীর মিথুনকে তার তারাগঞ্জ উত্তর বাজার এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রেপ্তার করে শেরপুর আদালতে প্রেরণ করে।

র‌্যাবের পোশাক পরা ও প্রশাসনের অনুমতি ব্যতীত ড্রোন ক্যামেরা ব্যবহার করা দুটোই নিষিদ্ধ এমনটা জানিয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম বলেন, মিথুনকে র‌্যাবের পোশাক পরিহিত যুবকের সাথে ছবি তোলার কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া র‌্যাব সেজে সমাবেশে ভয়-ভীতি প্রদর্শনের দায়ে আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত সহযোগি আসামী মিথুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের পুলিশ রিমান্ড চেয়ে আজ সোমবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

কৃষিবিদ বদিউজ্জান বাদশা বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যেমন খুশি তেমন সাজো নিয়ে অনুষ্ঠান হয়। হয়তো ওই যুবকটিও র‌্যাবের সদৃশ্য কালো পোশাক পরে আলাদা আনন্দ দিতে সমাবেশ স্থলে এসেছিল। তবে এই ঘটনার জন্য এটা প্রতিপক্ষের নির্লজ্জ ও পক্ষপাতমূলক মামলা।

তিনি বলেন, এ ধরনের ঘটনায় আইনের অপব্যবহার সাধারণ মানুষের মাঝে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করবে। তিনি প্রতিপক্ষকে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

ad