সিরাজগঞ্জে আটক ২ রোহিঙ্গা নারীকে হস্তান্তর, দালালের বিরুদ্ধে মামলা

Rohingya
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থেকে আটক দুই রোহিঙ্গা নারীকে উখিয়া বালুখালী এস-১৭ ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় দালাল নজরুল ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রবিবার (২৯ এপ্রিল) তাদের ক্যাম্পে হস্তান্তর ও মামলাটি দায়ের করা হয়।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, ভাঙ্গাবাড়ি মহল্লার মোক্তেল হোসেনের ছেলে নজরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আদম ব্যাবসার সাথে জড়িত।  বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বেকারদের অবৈধ পথে বিদেশ পাঠান তিনি।

গত বছর মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসা অনেক রোহিঙ্গাদের বিদেশ পাচার করেছেন তিনি। এছাড়া এসব ক্যাম্প এলাকা থেকে নারীদের মালয়েশিয়া পাঠানোর কথা বলে এনে জোড়পূর্বক দেহ ব্যবসায় নামিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন তিনি। এমন দুই রোহিঙ্গা নারীকে ক্যাম্প থেকে এনে তার বাড়িতে উঠালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে গত শুক্রবার তাদের উদ্ধার করে।

নজরুলের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গা তরুণী রোকেয়া খাতুন (১৯) ও রহিমা খাতুন (১৮) জানান, তাদের স্বামী মালয়েশিয়া শ্রমিকের কাজ করছে। সম্পর্কে তারা ননদ-ভাবি। অল্প টাকায় মালয়েশিয়া পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে দালাল নজরুল তাদের নিয়ে আসে।

এলাকার মুরুব্বী হারুন অর রশিদ সহ কয়েকজন বলেন, নজরুল চিহ্নিত মানব পাচারকারী। অসহায় রোহিঙ্গা যুবতীদের দিয়ে অনৈতিক ব্যবসা করাতে ও বিদেশে পাঠাতে বাড়িতে এনেছিল সে।

এনায়েতপুর থানার এসআই রিপন কুমার বলেন, মহামান্য আদালতের নির্দেশে রোহিঙ্গা নারীদের নিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া বালুখালী এস-১৭ ক্যাম্পে হস্তান্তর করা হয়েছে।

থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস বলেন, মানবপাচার আইনে নজরুল দালালসহ তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে সবাই পলাতক রয়েছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।

ad