করোনা শনাক্ত ও মৃত্যু ফের বেড়েছে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ হাজার ৯৩১ জনে। 


একই সময়ে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৮৫১ জন। এতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১৫ লাখ ৩০হাজার ৩৯৩ জনে।


রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।


এর আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪৮ জনের মৃত্যু হয়। ওইদিন নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৩২৭ জন।


গতকাল (১১ সেপ্টেম্বর) রোগী শনাক্তের দৈনিক হার ছিল সাত দশমিক তিন। যা আজ বেড়ে হয়েছে সাত দশমিক ৪৬ শতাংশ। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। এসময়ে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৮৭১ জন।


স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হওয়া এক হাজার ৮৭১ জনকে নিয়ে দেশে করোনাতে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসেবে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৩০ হাজার ৪১৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৫১ জনকে নিয়ে দেশে করোনাতে আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসেবে মোট মারা গেলেন ২৬ হাজার ৯৩১ জন। 


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন তিন হাজার ৫৮৬ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনা থেকে সুস্থ হলেন ১৪ লাখ ৭৮ হাজার ৮২১ জন।


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ২৫ হাজার ১১২টি আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৫ হাজার ৭৪টি।


দেশে এখন পর্যন্ত মোট ৯২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৩৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৬৮ লাখ ৩৩ হাজার ৫৫২টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ২৪ লাখ ১৩ হাজার ১৮১টি।


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে রোগী শনাক্তের হার সাত দশমিক ৪৬ শতাংশ আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৫৫ শতাংশ।


শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৬ শতাংশ।


গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৫১ জনের মধ্যে পুরুষ ২২ জন আর নারী ২৯ জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৩৫৮ জন আর নারী মারা গেলেন ৯ হাজার ৫৭৩ জন।


গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।