দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার নিয়ে সংশয় কাটেনি: সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, প্রকল্প অনুমোদন না হওয়ায় আগামী দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ব্যবহার নিয়ে সংশয় কাটেনি।


১৮ জানুয়ারি, বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সিইসি এ কথা বলেন। ঢাকায় ইইউর দূত চার্লস হোয়াইটলি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে রয়েছেন।


তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতবিরোধ আছে। এসব মতবিরোধ দূর করতে সংলাপ প্রয়োজন। দলগুলোকে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে রাজনৈতিক ইস্যু সমাধান করতে হবে। তাহলেই গণতান্ত্রিক চর্চার মধ্য দিয়ে ভোট হবে। সিইসি বলেন, বিদেশী পর্যবেক্ষক নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আসলে ভাল হবে।


এদিকে ডেলিগেশন অফ দি ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন টু বাংলাদেশের আম্বাসেডর হেড অব ডেলিগেশন চার্লস হোয়াইটলি বলেন, নির্বাচন পর্যবেক্ষণে তারা আগ্রহী। বিদেশি পর্যটক আসার ব্যাপারে বাংলাদেশের ইতিবাচক মনোভাব আমাদের পরবর্তী নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাতে উৎসাহবোধ জোগাচ্ছে। সবাই শান্তিপূর্ণ, অংশগ্রহণমূলক ও স্বচ্ছ নির্বাচন চায়। নির্বাচন কমিশনকে কোন পরামর্শ দেননি জানিয়ে তিনি বলেন ইসি তাদের কাজ করে যাচ্ছে।


বৈঠকে সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল, নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর ও আনিছুর রহমান উপস্থিত রয়েছেন। নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব ও রাশেদা সুলতানা বৈঠকে অংশ নেননি৷


বৈঠকে অংশ নেয়া অন্য প্রতিনিধিদের মধ্যে রয়েছেন- ঢাকায় ইইউর ডেপুটি হেড অফ মিশন ব্রেন্ড স্পাইনার, ডেনমার্কের দূত ইউনি স্ট্র‍্যাপ পিটারসন, সুইডেনের দূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ভন, জার্মানির দূত আচিম টোস্টার, নেদারল্যান্ডসের দূত এন্যি গিরার্ড ভ্যান লুইন, ফ্রান্সের ডেপুটি হেড অফ মিশন গিলিয়াম এড্রেন ডে কের্ডেল, ইতালির ডেপুটি হেড অফ মিশন মাতিয়া ভেনচুরা, স্পেনের হেড অফ মিশন ইগনাসিয়ো সাইলস ফার্নান্দেজ, সুইজারল্যান্ডের দূত নাথালি চুয়ার্ড ও নরওয়ের দূত এস্পেন রিক্টার সেভেন্ডসেন।