কামরানের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আরিফের

kamran-arif
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ের দ্বিতীয় দিনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদরউদ্দিন আহমদ কামরানের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছেন বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।

সোমবার (২ জুলাই) আরিফের পক্ষে নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ।

আরিফের পক্ষে দেয়া অভিযোগ, আসন্ন সিলেট সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হলেও যেহেতু এখনও প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ হয়নি, তাই নির্বাচনের বিধি অনুযায়ী কেউই প্রচারণায় অংশগ্রহণ করতে পারেন না। কিন্তু সরকার দলীয় মেয়র পদপ্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও তার পক্ষে তারই স্ত্রী, ছেলে এবং যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীরা নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন করে লিফলেট বিতরণসহ প্রচারণা চালাচ্ছেন। এ খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। যা নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, ‘নির্বাচনের প্রথম ও প্রধান শর্ত যেখানে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরী করা। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের নির্লিপ্ততা নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য হুমকি হয়ে যাচ্ছে। সিলেট সিটি করপোরেশনের সরকারদলীয় প্রার্থীর পক্ষে প্রতীক বরাদ্দের আগেই যেভাবে প্রচারণা চালানো হচ্ছে, তা নির্বাচনের আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন হওয়া সত্ত্বেও নির্বাচন কমিশন এবং স্থানীয় প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না, যা নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য অন্তরায়।’

সিলেট সিটি নির্বাচন ‘সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ’ করার স্বার্থে নৌকা প্রতীকের পক্ষে যারা ‘নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন করে করেছেন’, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আরিফের পক্ষে ওই অভিযোগে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান বলেন, আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি।  অফিসের অন্য কোনো কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ জমা দেয়া হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে আলীমুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি এখন বাহিরে আছি।

ad