জিয়াউর রহমান দেশে মাদক ব্যবসা চালু করেন: কৃষিমন্ত্রী

Motia chowdhury
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান দেশের যুব সমাজকে ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে ৩৬০টি মদের বারের লাইসেন্স প্রদানের মাধ্যমে বাংলাদেশে মাদক ব্যবসা চালু করেন বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

শনিবার (৯ জুন) দুপুরে শেরপুরের নকলায় মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপহার ও প্রণোদনা এবং গরীব-দুঃস্থদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, বিএনপির আমল থেকেই শুরু হওয়া মাদক ব্যবসা এখন ভয়াবহ সমস্যায় পরিণত হয়েছে। এই সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এতে কেবলমাত্র চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ীরাই মরছে। শেখ হাসিনা বিনা কারণে কোনো মায়ের বুক খালি করেন না।

তিনি বলেন, মাদকের সাথে জড়িতরা যে দলেরই হোক না কেন তাদেরকে কোনো প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না। আওয়ামী লীগেরও যদি কেউ এ অপকর্ম করে ধরা পড়ে, তাহলে তার বিচার তো হবেই, দল থেকেও বহিস্কার করা হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার অজুহাত খুঁজছে। বিএনপি একটি ধাপ্পাবাজ রাজনৈতিক দল। নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে জেনেই নির্বাচন থেকে সরে আসতে নানা পাঁয়তারা করছে তারা।

তিনি বলেন, কোনো একদল খেলায় অংশ গ্রহণ না করলে কিন্তু খেলা থেমে থাকে না এবং থাকবেও না। তারা নির্বাচনে আসবে কি আসবেনা  সেটা তাদের দলীয় বিষয়। তবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে নির্ধারিত সময়েই নির্বাচন হবে।

মন্ত্রীর সাথে শেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, নবনিযুক্ত পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব কুমার সরকার, উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মাহবুবুল আলম সোহাগ নপ্রমুখ উপস্তিত ছিলেন।

ad