অবশেষে জয়ের দেখা পেল মুম্বাই

mumbai win vs bengaluru
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) টানা তিন ম্যাচ হারার পর অবশেষে জয়ের দেখা পেয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে তারা ৪৬ রানের জয় পায়।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) রাতে মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মার ঝড়ো ৯৪ রানের ইনিংসে ভর করে ৬ উইকেটে ২১৩ রানের বিশাল স্কোর গড়ে মুস্তাফিজুর রহমানের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। জবাবে বিরাট কোহলির একক লড়াই চালিয়ে যাওয়া অপরাজিত ৯২ রানের ইনিংসের পরেও বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কারণে বেঙ্গালুরু ৮ উইকেটে ১৬৭ রানেই থামে।

আগে ব্যাট করা মুম্বাইয়ের ইনিংসের থম দুই বলে সুরিয়া কুমার ইয়াদভ এবং ইশান্ত কিষানকে বোল্ড করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় দিল্লি। তবে তা কেড়ে নিতে বিন্দুমাত্র সময় নেননি আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করা রোহিত এবং লুইস।

রোহিত-লুইস জুটি ঝড় তুলে ১০৮ রানের জুটি গড়ে মুম্বাইকে সুবিধাজনক অবস্থানে নিয়ে যান। লুইস ৪২ বলে ৬ চার ও ৫ ছক্কার মারে ৬৫ রান করে আউট হলেও রোহিত চালিয়ে যান তার ঝড় এবং শেষ ওভারে আউট হওয়ার আগে ৫২ বলে ১০ চার ও ৫ ছক্কার মারে খেলেন ৯৪ রানের দারুণ এক ইনিংস। শেষদিকে হার্দিক পান্ডিয়ার ৫ বলে ১৭ রানের ক্ষুদ্র ঝড়ে ২০০ রানের গন্ডি পার করে মুম্বাই।

জবাবে শুরু থেকেই নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকে বেঙ্গালুরু। ফলে রান রেটের সাথে তারা পাল্লা দিতে পারেনি। ১০৬ রানেই তারা হারিয়ে ফেলে ৬ উইকেট। তবে পরাজয়ের ব্যবধান কিছুটা কমেছে কোহলির ৬২ বলে ৭ চার ও ২ ছক্কার মারে অপরাজিত ৯২ রানের ইনিংসের জন্য। শেষদিকে তার আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের জন্য দলের রান ১৬৭ পর্যন্ত যায়।

মুম্বাইয়ের পক্ষে ক্রুনাল পান্ডিয়া ৩টি, ভূমরা ও ম্যাকলেনাগ্লেন ২টি উইকেট নেন। তবে মুস্তাফিজ মোটেও তার নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। ৪ ওভারে উইকেট শুন্য থেকে রান দিয়েছেন ৫৫!

এই জয়ের ফলে ৪ ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে থাকা মুম্বাই পয়েন্ট তালিকার ছয়ে উঠে এসেছে। সমান ম্যাচে বেঙ্গালুরু আর দিল্লির পয়েন্ট ২ থাকলেও রান রেটের কারণে তারা যথাক্রমে সপ্তম এবং অষ্টম স্থানে রয়েছে।

ad