আগামীবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ খেলছে যে দলগুলো

Champions-League
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: ২০১৭-১৮ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে আগামী ২৭ মে মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। ওই ম্যাচ দিয়েই ঘটতে চলেছে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতি। তবে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতি ঘটলেও কিন্ত থেমে নেই লড়াই। দলগুলো আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ খেলার যোগ্যতা অর্জনের জন্য যার যার লীগে চালিয়ে যাচ্ছে লড়াই।

তাহলে দেখে নেওয়া যাক আগামীবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলছে কারা।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ: ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ লীগ থেকে চারটি দল খেলতে পারবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে। মানে পয়েন্ট টেবিলের ১ নম্বর থেকে ৪ নম্বর দল খেলবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে। এ লীগ থেকে ইতিমধ্যেই ম্যানচেষ্টার সিটি ও ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেড নিশ্চিত করে ফেলেছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ।

তবে তিনে থাকা লিভারপুল, চারে থাকা টটেনহ্যাম ও পাঁচে থাকা চেলসি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ নিশ্চিত করতে চালিয়ে যাচ্ছে তুমুল লড়াই। তিনে থাকা লিভারপুলের ৩৬ ম্যাচ থেকে পয়েন্ট এখন ৭২। তাদের আরও আছে দুই ম্যাচ। ৩৫ ম্যাচ থেকে টটেনহ্যামের পয়েন্ট এখন ৭১। সমান ম্যাচে চেলসির পয়েন্ট ৬৬। কাল চেলসির সাথে ম্যাচ আছে লিভারপুলের। এ ম্যাচে যদি চেলসি হারে তাহলে বাদ পড়ে যাবে তারা। আর চেলসি যদি জেতে তাহলে তাদের কাছে সুযোগ থাকবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ নিশ্চিত করার। তাহলে শঙ্কায় পড়বে মূলত লিভারপুল। তবে টটেনহ্যাম তিন ম্যাচ থেকে ৫ পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পারলেই তাদের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ নিশ্চিত।

লা লিগা: ফুটবলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জনপ্রিয় এই লীগ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলতে পারবে চারটি দল। ১ থেকে ৪ নম্বর দল সরাসরি অংশগ্রহণ করার সুযোগ পায় এই লীগে। লা লিগা থেকে ইতোমধ্যেই তিনটি দল নিশ্চিত করে ফেলেছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ। তারা হলো- বার্সেলোনা, অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ ও রিয়াল মাদ্রিদ। এখন শুধু বাকি আছে একটি দল।

এই লীগে এখন ৩৫ ম্যাচ থেকে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে ভ্যালেন্সিয়া। সমান ম্যাচে পাঁচে থাকা রিয়াল বেটিসের পয়েন্ট ৫৯। এখন বেটিসকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলতে হলে জিততে হবে বাকি তিনটি ম্যাচ। সেই সাথে দোয়া করতে হবে ভ্যালেন্সিয়া যেন সব ম্যাচ হারে। তারা যদি একটি ম্যাচও ড্র করে তাহলে আর বেটিসের কোনো সুযোগ থাকছে না।

সিরি‘এ’: ইতালিয়ান লীগ থেকেও প্রথম চারটি দল সুযোগ পায় চ্যাম্পিয়ন্স লীগ খেলার। এই লীগ থেকে নাপোলি ও জুভেন্টাস নিশ্চিত করে ফেলেছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ। এখন লড়াইটা হচ্ছে রোমা, লাজিও ও ইন্টারনাজিওনালের মধ্যে।

তিনে থাকা রোমার ৩৫ ম্যাচ থেকে পয়েন্ট এখন ৭০। সমান ম্যাচে লাজিওর পয়েন্ট ৭০ ও ইন্টারনাজিওনালের ৬৬। তিন দলেরই হাতে আছে তিনটি করে ম্যাচ। সমীকরণটা এখন এমন দাঁড়িয়েছে এখান থেকে যে কে বাদ পড়ছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

বুন্দেসলিগা: জার্মানির লীগ থেকেও চারটি দল সরাসরি চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ পায়। এ লীগ থেকে এবার বায়ার্ন মিউনিখ চ্যাম্পিয়ন্স লীগ খেলা নিশ্চিত করেছে। এখন সুযোগ পাবে আর তিনটি দল। তবে এই তিনটি পজিশনের জন্য লড়ছে ছয় দল।

এই লীগে ৩২ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে শালকে, সমান ম্যাচে বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডের পয়েন্ট এখন ৫৫, হফেইনহামের ৫২, বেয়ার লেভারকুসেনের ৫১, লেইপাজের ৪৭ আর ফ্রান্কফুটের ৪৬। এই লীগে বাকি আছে আর দুই ম্যাচ। এই দুই মাচ থেকে শালকে যদি একটি জয় পায় তাহলে তারা চলে যাবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে। তবে ডর্টমুন্ডের একটি ম্যাচ জিতলেই হবে না সাথে একটি ড্রও করতে হবে। বাকি একটি দল কারা যাবে তা শেষ ম্যাচের আগে বলা যাচ্ছে না।

লীগ ওয়ান: ফেঞ্চ লীগ থেকে শুধুমাত্র চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ দল সরাসরি চ্যাম্পিয়ন্স লীগে খেলার সুযোগ পায়। তিন নম্বর দলটিকে কোয়ালিফাই রাউন্ড খেলে যেতে হবে মূল পর্বে। যেহেতু প্যারিস চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেছে সেই সুবাদে তাদের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ নিশ্চিত।

৩৫ ম্যাচ শেষে এই লীগে এখন পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে আছে লিয়ন। তাদের পয়েন্ট ৭২। সমান ম্যাচে মোনাকোর পয়েন্ট ৭১ আর মার্শেইর ৭০। তাই এখনো বলা যাচ্ছে না কে সরাসরি যাবে আর কে কোয়ালিফাই খেলার সুযোগ পাবে।

স্কটল্যান্ড থেকে এবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ নিশ্চিত করেছে সেল্টিক, পতুগিজ লীগ থেকে পোর্তো, রাশিয়া থেকে সরাসরি খেলবে লোকোমোটিভ মস্কো ও স্পার্টাক মস্কো। কোয়ালিফাই খেলে মূল পর্বে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে সিএসকে মস্কো। সুইস লীগ থেকে ইয়াং বয়েজের খেলা নিশ্চিত হয়েছে। বাকি লীগগুলো থেকে এখনো কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি।

ad