টি-২০ নারী বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশ

bangladesh women in world cup.jpg 2
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: টি-২০ নারী বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সেমিফাইনালে স্কটল্যান্ডকে ৪৯ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। একইসঙ্গে তারা বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলা নিশ্চিত করেছে বাংলাদশ নারী ক্রিকেট দল।

বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় আমসটেলভিনে শুরু হওয়া ম্যাচে টসে হেরে আগে ব্যাট করা বাংলাদেশ ৬ উইকেটে ১২৫ রান করে। জবাবে স্কটল্যান্ড বাঘিনীদের বোলিং তোপে ৭ উইকেটে মাত্র ৭৬ রান করেই থেমে যায়।

বাংলাদেশ আগে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে দারুণভাবে এগিয়ে যাচ্ছিল বাঘিনীরা। শামিমা এবং আয়েশার ৫১ রানের জুটি দলকে বড় স্কোরের আশা দেখাচ্ছিল।

তবে সপ্তম ওভারে ১৬ বলে ৩ চারে ২২ রান করা শামিমার রান আউটে ভাঙে উদ্বোধনী জুটি। তাঁর পরের ওভারেই ২০ রান করে চ্যাটার্জীর বলে স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন আয়েশা।

এরপর দ্রুতই ফারজানা, রুমানা এবং ফাহিমার আউটে বিপদে পড়ে বাঘিনীরা। বিনা উইকেটে ৫১ থেকে স্কোর হয়ে যায় ৫ উইকেটে ৮৯।

পরে নিগার সুলতানা ষষ্ঠ উইকেটে সানজিদাকে নিয়ে ৩২ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেন এবং মাঝারি চ্যালেঞ্জিং একটি সংগ্রহ দলকে পেতে সহায়তা করেন। নিগার ২ চারের মারে করেন দলীয় সর্বাধিক ৩১ রান করে অপরাজিত থাকেন। সানজিদা করেন ১ চারের মারে মূল্যবান ১৯ রান।

স্কটল্যান্ডের পক্ষে চ্যাটার্জি ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। এছাড়া, ব্রেস, ম্যাকগিল ও মাকসুদ নেন একটি উইকেট।

জবাবে স্কটল্যান্ডের ইনিংসের শুরুতে স্কুলসের উইকেট তুলে নেন সালমা। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে এস জে ব্রুস এবং আর ই ব্রুস ৪৩ রান যোগ করে বাঘিনীদের খানিকটা চিন্তায় ফেলে দেন।

পরে অবশ্য লাল সবুজের দল বল হাতে প্রতিপক্ষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে উইকেট তুলতে থাকে এবং রানের গতি একেবারেই নিয়ন্ত্রণে এনে ফেলে। ৩১ রান করা এস জে ব্রুসকে তুলে নেন ফাহিমা এবং ২১ রান তোলা আর ই ব্রুসকে তুলে নেন নাহিদা। এরপর বাকি গল্পটা বাংলাদেশের একপেশে প্রাধান্য দেখানোর গল্প।

১৪তম ওভারে রুমানার বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন গ্লেন আর আউটে কাটা পড়েন জ্যাক। পরের ওভারে নাহিদার বলে বোল্ড হন ব্রুস আর স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়েম ম্যাকগিল।

১৫তম ওভারে রুমানার বলে বোল্ড হন চ্যাটার্জি। তাতেই বাংলাদেশ বিশ্বকাপে যাওয়া প্রায় নিশ্চিত করে ফেলে। পরে আর উইকেট না পড়লেও ৭ উইকেটে ৭৬ রানে থামতে বাধ্য হয় স্কটল্যান্ড।

বাঘিনীদের পক্ষে রুমানা ৪ ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে এবং নাহিদা ১৬ রান দিয়ে ২টি করে উইকেট নেন। এছাড়া, একটি করে উইকেট নেন সালমা ও ফাহিমা।

ad