‘নেইমার কাপুরুষের মতো লুকিয়ে থাকতে পারে না’

Neymar
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: হট ফেবারিট হিসেবেই বিশ্বকাপে খেলতে গিয়েছিল ব্রাজিল। হেক্সা জয়ের মিশনে নামা এই দলটির সবচেয়ে বড় তারকা ছিলেন নেইমার জুনিয়র। বলতে গেলে তাকে ঘিরেই শিরোপা উদ্ধারের স্বপ্ন দেখেছিল ব্রাজিলিয়ানরা। তবে তাদের স্বপ্ন কোয়ার্টার ফাইনালেই থামিয়ে দিয়েছে বেলজিয়াম। তাতে অবশ্য ব্রাজিলিয়ানরা খুব একটা হতাশ নয়। ভাগ্যকে মেনে নিয়েছেন তারা।

তবে তারা চটেছেন নেইমারের উপর। তবে পারফরমেন্সে হতাশ করার জন্য নয়, মুখে কুলুপ আটার জন্য।

ব্রাজিলিয়ান দলকে বরণ করে নিতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়েছিলেন সে দেশের সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষ। বিমানবন্দর থেকে সবাই উপস্থিত হন সাধারণ মানুষের সামনে। তবে সেখানে ছিলেন না নেইমার। তিনি পেছন দরজা দিয়ে বের হয়ে সোজা চলে যান নিজের বাড়িতে। আর এতেই আপত্তি ব্রাজিলিয়ানদের।

ফোলহা নামের এক সাংবাদিক বলেছেন, দলের সেরা তারকার মতো আচরণ করছেন না নেইমার। তার মনে রাখা উচিত সমর্থকদের জন্যই আজ সে আজকের অবস্থানে। রাশিয়াতে ব্রাজিলের ভরাডুবির কারণ নিয়ে কথা না বলে সে কাপুরুষের মতো লুকিয়ে থাকতে পারে না।

তাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও। রদ্রিগেজ নামে একজন লিখেছেন, নেইমার তার দায়িত্ব ভুলে যেতে পারেন না। ওর উচিত ছিল সবার সামনে হাজির হওয়ার। সে তা না করে পালিয়েছে। এটা খেলোয়াড়সুলভ আচরণ নয়।

সান্তানদার নামে একজন লিখেছেন, নেইমার তার দায়িত্বটা এড়িয়ে যেতে পারে না। আমরা তো তাকে দোষ দেইনি। তাহলে সে কাপুরুষের মতো আচরণ করেছে কেন?

এবারের বিশ্বকাপে নেইমারকে তার আসল রূপে দেখা যায়নি। এই তারকা বিশ্বকাপে মোট দুটি গোল করলেও আলোচনায় ছিলেন অভিনয়ের জন্য। বেলজিয়ামের বিপক্ষে হারার দুইদিন পর তিনি বলেছিলেন, “ভীষণ কষ্ট হচ্ছে। কারণ আমরা জানতাম এই দল ইতিহাস তৈরি করতে পারত৷ কিন্তু এবার তা হলো না৷ নতুন করে ফুটবল খেলার শক্তিটাই আর পাচ্ছি না। তবে আমার বিশ্বাস, ঈশ্বর যে কোনো পরিস্থিতি থেকে আবার ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি দেবেন৷ তাই এই পরাজয়ের মুহূর্তেও উপরওয়ালাকে ধন্যবাদ জানাই।

এবার বিদায় নিলেও আগামীবার আবার নতুন করে ফিরে আসার আভাস দিয়ে এই তারকা লেখেন, ষষ্ঠ বিশ্বকাপ ঘরে তোলার পথে ধাক্কা খেলাম৷ কিন্তু মাথায় ও মনে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার খিদে রয়েই গেল।

ad