রিয়াল মাদ্রিদের জন্য দুঃসংবাদ

real madrid
ad

স্পোর্টস ডেস্ক; ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাসে যোগদান থেকে একের পর এক দুঃসংবাদ শুনেই যাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথমে রিয়ালে যোগদানে নেইমার জুনিয়রের না, এরপর মোহাম্মদ সালাহ, রবার্ট লেভানডস্কি ও কিলিয়ান এমবাপ্পের রিয়ালে যোগদানের প্রস্তাব নাকোচ। মাদ্রিদ যেন চোখেমুখে অন্ধকারই দেখছিল। এবার তাদের হতাশাটা আরও কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছেন এডেন হ্যাজার্ড।

বেলজিয়াম ও চেলসির এই তারকা স্ট্রাইকার জানিয়ে দিয়েছেন তিনি আপাতত চেলসিতেই থাকছেন। এখন ক্লাব ছাড়ার কোনো ইচ্ছেই নেই তার।

অনেকদিন ধরেই রিয়াল মাদ্রিদ তাদের ভবিষ্যতের জন্য একজন তরুণ ফুটবলারকে খুঁজছিল। কারণ তাদের সেরা তারকার বয়স ছিল ৩৩। এ ক্ষেত্রে তাদের পছন্দ ছিল হ্যাজার্ড, সালাহ ও নেইমার। তবে প্রথম পছন্দ ছিল নেইমার। Hazardএই খোঁজাখুঁজির মধ্যেই হঠাৎ করে সেরা তারকা রোনালদো চলে যান জুভেন্টাসে। এতে আরও বড় বিপাকে পড়ে মাদ্রিদ।

এরই মাঝে তারা সালাহকে দলে ভেড়াতে তোড়জোড় শুরু করে। তবে বিশ্বকাপের আগেই সালাহ জানিয়ে দেন তিনি লিভারপুলেই থাকছেন। সালাহর আগেই অবশ্য নেইমারের সাথে যোগাযোগ করে মাদ্রিদ। তবে বিশ্বকাপ শেষ হলে নেইমার জানিয়ে দেন তিনি পিএসজিতেই থাকছেন। যদিও রিয়াল সভাপতি এখনো নেইমারকে পাওয়ার আশা ছাড়েননি।

এরই মাঝে তারা চেষ্টা চালায় হ্যাজার্ড ও এমবাপ্পের জন্য। এমবাপ্পে আগেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি পিএসজি ছাড়বেন না। তবে রিয়াল জানতো হ্যাজার্ডের স্বপ্ন মাদ্রিদে খেলা। সে অন্তত না করবে না। তাদের ধারণা চিল যদি চেলসি তাকে না ছাড়ে তাহলে বায় আউট ক্লোজে তাকে টেনে নেওয়া যাবে। তার জন্য ২০০ মিলিয়ন প্রস্তুতও রেখেছিল রিয়াল।

তবে শেষ অবধি এই তারকাও হতাশ করেছে রিয়ালকে। সেও এ বছর চেলসি ছাড়ছে না বলে গতকাল জানিয়ে দিয়েছে। এতে মহাবিপাকেই পড়ল মাদ্রিদ। এখন আর তাদের হাতে কোনো অপশনই খোলা নেই নেইমার ছাড়া। আর ওনইমারকে ছাড়তে কোনোমতেই রাজি নয় পিএসজি।

আরও দুই বছর চেলসির সঙ্গে চুক্তি আছে হ্যাজার্ডের। চুক্তির মেয়াদ বাড়াতেও অনিচ্ছা তার। চেলসি ৩-২ গোলে আর্সেনালকে হারানোর পর হ্যাজার্ড বলেছেন, ‘আপনারা জানেন আমি বিশ্বকাপ শেষে কী বলেছিলাম। আমি এখানে সুখী আছি, এনিয়ে আমি এখন কোনও কথা বলতে চাই না। অনেক কিছু বলা হচ্ছে, যেগুলো অযথা। এখন আমি খুশি। আমার চুক্তির এখনও দুই বছর বাকি আছে। দেখা যাক কী হয়। কিন্তু আমি যাচ্ছি না (এই বছর)।

ad