টাইব্রেকারে ডেনমার্ককে হারিয়ে শেষ আটে ক্রোয়েশিয়া

croatia win vs denmark
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপ ফুটবলের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় ডেনমার্ককে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে হারিয়ে চতুর্থ দল হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ক্রোয়েশিয়া।

রবিবার (১ জুলাই) বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি নির্ধারিত সময়ের ৯০ মিনিট এবং অতিরিক্ত সময়ের ৩০ মিনিটের খেলা ১-১ গোলের সমতা থাকায় শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে গড়ায়।

টাইব্রেকারে আগে শট নেয়া ডেনিস ফুটবলার এরিকসনের বল ঠেকিয়ে দেন সুবাসিচ। পরের শটে মিলান বাজেজির শট প্রতিহত করেন ডেনিস গোলকিপার ক্যাসপার স্মাইকেল।

দ্বিতীয় শটে সিমন কাজারে ও আন্দ্রেজ কারমারিক গোল পেলে ব্যবধান হয় ১-১। তৃতীয় শটে মাইকেল ক্রোহন ও লুকা মড্রিচ গোল করলে ব্যবধান দাঁড়ায় ২-২।

চতুর্থ শটে লাসের বল ঠেকান সুবাসিচ ও পিভারিকের বল ঠেকান ক্যাসপার স্মাইকেল। পঞ্চম ও শেষ শটে জজেনসেনের শট আবারও ঠেকান সুবাসিচ। আর রাকিটিচ গোল করে ৩-২ ব্যবধানে ক্রোয়েশিয়াকে জিতিয়ে তোলেন শেষ আটে।

এই ম্যাচ টাইব্রেকারে যেতো না যদি অতিরিক্ত সময়ের ২৬ মিনিটের মাথায় লুকা মড্রিচের পেনাল্টি সুইস গোলকিপার ক্যাসপার স্মাইকেল ধরে না ফেলতেন।

এর আগে ম্যাচের প্রথম মিনিটে ম্যাথিয়াস জর্গেনসনের গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় ডেনমার্ক। ইয়োনাস কুনুডসেনের লম্বা থ্রোয়ে বল পান টমাস ডেলেনি। জটলার মধ্যে বল দেন মাটিয়াস ইয়োরগেনসেনকে। এই ডিফেন্ডারের গড়ানো শট ক্রোয়েশিয়া গোলরক্ষক দানিয়েল সুবাসিচের পায়ে লেগে জালে ঢুকে যায়।

পরে খেলা চতুর্থ মিনিটে ক্রোয়েশিয়ার হয়ে খেলার সমতা নিয়ে আসে মারিও মান্দজুকিচ। বিপদমুক্ত করার চেষ্টায় হেনরিক ডালসগার্ডের শটে বল ডিফেন্ডার আ্যন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেনের মুখে লেগে ডি-বক্সেই থাকে। মারিও মানজুকিচ বল পেয়ে জালে জড়ান। তাতে খেলা ১-১ গোলের সমতায় আসে।

গত রাত ১২টায় প্রথম রাউন্ডে অপরাজিত থাকা এই দুই দলের শুরু হওয়া ম্যাচের প্রথম মিনিটে ম্যাথিয়াস জর্গেনসনের গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় ডেনমার্ক। ইয়োনাস কুনুডসেনের লম্বা থ্রোয়ে বল পান টমাস ডেলেনি। জটলার মধ্যে বল দেন মাটিয়াস ইয়োরগেনসেনকে। এই ডিফেন্ডারের গড়ানো শট ক্রোয়েশিয়া গোলরক্ষক দানিয়েল সুবাসিচের পায়ে লেগে জালে ঢুকে যায়।

পরে খেলা চতুর্থ মিনিটে ক্রোয়েশিয়ার হয়ে খেলার সমতা নিয়ে আসে মারিও মান্দজুকিচ। বিপদমুক্ত করার চেষ্টায় হেনরিক ডালসগার্ডের শটে বল ডিফেন্ডার আ্যন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেনের মুখে লেগে ডি-বক্সেই থাকে। মারিও মানজুকিচ বল পেয়ে জালে জড়ান।

ad