লন্ডন হামলার পর বাংলাদেশে খেলতে অনেকে সাহস পাবে: মাশরাফি

Bangladesh, play, courage, Mashrafe
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: ইংল্যান্ডের রাজধানী লন্ডনে দুটি পৃথক স্থানে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার পর অনেক দেশই বাংলাদেশের খেলতে আসার সাহস পাবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

রবিবার (৪ জুন) চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচপূর্ব আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

মাশরাফি বলেন, এমন ঘটনা পৃথিবীর সব জায়গায় ঘটছে। আমাদের ক্রিকেটের জন্য তা ভালোই হয়েছে। অনেক সময় এমন কারণে আমাদের ওখানে খেলা হয় না। এখন আমরা খেলছি, অনেকে দেখছে। এখন তারা বুঝতে পারবে। এগুলো দেখে অনেকে সাহস পাবে বাংলাদেশে গিয়ে খেলতে।

বর্তমান নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, আইসিসি এখন সব জায়গায় নিরাপত্তার বিষয়টি খুবই ভালোভাবে নজর রাখছে। স্বাগতিক দলও সেটা নিয়ে ভাবে। তাই এখন কোথায়ও নিরাপত্তা নিয়ে খেলোয়াড়দের খুব একটা ভাবতে হয় না। বিষয়টি নিয়ে আমরা খুব একটা চিন্তিত নই। তা ছাড়া আমরা তো বেশির ভাগ সময়ই হোটেলে থাকি। হোটেলের নিরাপত্তা ভালোই আছে। তা নিয়ে সমস্যা হওয়ার কথাও না।

২০১৬ সালে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া দলে না আসা প্রসঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, সারাবিশ্বেই এসব হচ্ছে। যেদিকে তাকান, অনেক সিকিউরড দেশেও হামলা হচ্ছে। স্বাগতিকদের নিরাপত্তা ভালো থাকলে সমস্যা হয় না। আসলে কাউকে মেসেজ দেওয়ার কিছু নেই। শুধু বলতে পারি, আমাদের দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেদ করে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার সুযোগ নেই।

ইংল্যান্ডের বাংলাদেশ সফরের সময় ইয়ান মরগান এবং অ্যালেক্স হেলসের না আসা নিয়ে তিনি বলেন, যখন ইংল্যান্ড আমাদের দেশে গিয়েছিল আমরা ধন্যবাদ দিয়েছিলাম। মরগান বা হেলস যায়নি। হয়তো তারা ভয় পেয়েছিল। এখন তারা বুঝবে তাদের দেশেও এমন হচ্ছে।

ঘটনার সময় টাইগারদের অবস্থান সম্পর্কে জানিয়ে মাশরাফি জানান, আমরা তখন হোটেলে ছিলাম। কী হচ্ছে তা বোঝার চেষ্টা করছিলাম। সারা পৃথিবীতে এমন দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটেই চলছে। তবে আইসিসির ওপরে আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে। আমরা এ বিষয়ে বাড়তি কিছু ভাবছি না। এটা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। আমরা তো বেশিরভাগ সময় হোটেলেই থাকি। আর হোটেলের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও ভালো

ad