লর্ডসে শোচনীয় হারে তোপের মুখে কোহলির দল

India
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: ইংল্যান্ড বিপক্ষে লর্ডস টেস্টে ইনিংস এবং ১৫৯ রানের শোচনীয় ব্যবধানে হারের পর তীব্রভাবে সমালোচনার তোপের মুখে পড়েছে ভিরাট কোহলির টিম ইন্ডিয়া। কোহলি ও রবি শাস্ত্রীর দল নির্বাচন থেকে শুরু করে খেলার স্ট্র্যাটেজি নিয়ে চলছে বিশ্লেষণ এবং তাদের মুণ্ডুপাত।

ভারতীয় সমর্থক ও প্রাক্তন ক্রিকেটাররা রীতিমতো ধুয়ে দিচ্ছেন এমন বাজে পারফর্মেন্সের কারণে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই দাবি করছেন শাস্ত্রীকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার। এমন বাজে পারফরম্যান্স দেখে হতাশ ও বিরক্ত বীরেন্দ্রর শেবাগ।

টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের সেরা দল ভারত মূলত ইংলিশ পেসারদের সুইং বোলারদের কাছেই রীতিমতো আত্মসমর্পণ করে বসে আছে। তার মধ্যে অভিযোগ রয়েছে মাঠে নাকি খেলোয়াড়রা উদাসীন মনোভাবের ভেতর ছিলেন। তাদের নাকি জয়ের জন্য ন্যূনতম ক্ষুধা ছিলই না।

লর্ডসে পেস বান্ধব উইকেটে কোচ শাস্ত্রী দুই স্পিনারকে একাদশে কেন খেলালেন, তা কারোরই মাথায় আসছে না। দলে ব্যাটিং, বোলিং এবং ফিল্ডিং কোচ থাকার ফলে রবি শাস্ত্রীর ঘুরে বেড়ানো, বসে থাকা আর খাওয়া-দাওয়া ছাড়া কোন কাজটা করেন কিনা- এমন প্রশ্ন পর্যন্ত তাকে নিয়ে উঠেছে।

এমতাবস্থায়, শাস্ত্রীকে কোচের পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে রাহুল দ্রাবিড়কে বিরাটদের কোচ হিসেবে আনার দাবিও অনেকে উঠেছেন।

তবে খারাপ অবস্থার মাঝেও দলের পাশেই আছেন জানিয়ে বীরেন্দ্রর শেবাগ টুইটারে লিখেছেন, ভালো-মন্দ সব পরিস্থিতিতেই আমরা টিম ইন্ডিয়ার পাশে দাঁড়াতে চাই। তাদের সমর্থন করি। কিন্তু লড়াই না করেই হার স্বীকার করে নেয়াটা অত্যন্ত নিরাশাজনক। আশা করি এই পরিস্থিতি থেকে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে ঘুরে দাঁড়াবে।

ad