বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম, বিশ্বের ইতিহাসে দ্বিতীয়

১৯তম ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্বকাপে ১০০০ রান করার গৌরব অর্জন করেছেন তিনি। আজ আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ১০০০ রান পূর্ণ করেন তিনি। মাত্র ১৯ ম্যাচে এই রান পূর্ণ করেন সাকিব।

আজকের ম্যাচে মাঠে নামার আগে ৯৯৯ রান ছিল সাকিবের। ০ রানে না ফিরলেই তার ১০০০ রান পূর্ণ হতো। তবে এখন পর্যন্ত ৫১ রান করেছেন তিনি। এর মধ্যদিয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় ১৬ নম্বরে উঠে এসেছেন তিনি।

সাকিব প্রথম বাংলাদেশি খেলোয়াড় যিনি কিনা বিশ্বকাপে ১০০০ রান করেছেন। সাকিবের পর সর্বোচ্চ রানের মালিক মুশফিকুর রহিম। আজকের ম্যাচের আগে তার রান ছিল ৭৬২।

এছাড়া বিশ্বের মাত্র দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপে ১ হাজার বা তার বেশি রান এবং ২৫ উইকেটের মালিক হয়েছেন সাকিব। একমাত্র সানাথ জয় সুরিয়ার ২৭ উইকেট ও ১১৬৫ রান আছে বিশ্বকাপে। তবে সাকিব এ বিশ্বকাপে আরও কয়েকটি ম্যাচ পাবেন। ধারণা করা হচ্ছে ২৮ উইকেটের মালিক ছাড়িয়ে যাবেন জয়সুরিয়াকেও। এখন তার রান ১০৫০।

সাকিব আল হাসানের চতুর্থ বিশ্বকাপ এটি। এবারের বিশ্বকাপে ইতোমধ্যেই ৪৭৫ রান ও ৫ উইকেট নিয়ে ফেলেছেন তিনি। সামনে অন্তত দুইটি ম্যাচ পাবেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন :