শিরোপা উদযাপনে মুসলিম ক্রিকেটারের দৃষ্টান্ত...

নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছে ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর স্বভাবতই শিরোপা উদযাপনে মেতেছেন ইংলিশ ক্রিকেটাররা।

ইয়ন মরগানদের সেই উল্লাস থেকে নিজেদের বিরত রাখলেন মঈন আলী ও আদিল রশিদ। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের পর ট্রফি হাতে পেয়ে ইংল্যান্ডের সংস্কৃতি অনুযায়ী মদের বোতল (শ্যাম্পেইন) নিয়ে উদযাপন শুরু করেন ইংলিশ ক্রিকেটাররা।

তখন এই উদযাপন থেকে নিজেদের বিরত রাখেন ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের দুই মুসলিম তারকা ক্রিকেটার মঈন আলী ও আদিল রশিদ।

ইসলামে মদ হারাম হওয়ায় নিষিদ্ধ এই পানীয় নিয়ে উদযাপন করেননি ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের ধর্মভীরু এই দুই তারকা ক্রিকেটার। ধর্মপ্রাণ মুসলমান হিসেবে বরাবরই বেশ খ্যাতি রয়েছে এই দুই ইংলিশ ক্রিকেটারের।

খেলার মধ্যেও ধর্মীয় রীতি-নীতি যতটা সম্ভব মেনে ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করেন তারা। এদিকে মদের কারণে দলের সঙ্গে এ দুই ক্রিকেটারের শিরোপা উদযাপন না করার ঘটনা এই প্রথম নয়।

এর আগে, গত বছর ভারতকে নিজেদের ঘরের মাটিতে ৪-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজে হারানোর পরও এই একই কারণে দলের সঙ্গে শিরোপা উদযাপন করেননি তারা।

রোববার ইংল্যান্ডের লর্ডসে বিশ্বকাপ ফাইনালে নির্ধারিত ৫০ ওভারে প্রথমে ব্যাটে করে ২৪১ রান করে নিউজিল্যান্ড। টার্গেট তাড়া করতে নেমে ম্যাচে টাই করে বিশ্বকাপের স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

খেলা গড়ায় সুপার ওভারে। সুপার ওভারে ইংল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করে ১৫ রান করে। জবাবে ১৫ রানেই থেমে যায় নিউজিল্যান্ড।

সুপার ওভারে ম্যাচ টাই হওয়ায় বিজয়ী দল নির্ধারণে সুপার ওভারের আইন-কানুন দেখা হয়। সুপার ওভারের নীতিমালা অনুসারে মূল ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের চেয়ে আটটি বাউন্ডারি বেশি হাঁকানোয় ইংল্যান্ডকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়।

মন্তব্য লিখুন :