হাস্যকর ভুলে অ্যাতলেটিকোর পয়েন্ট, ডিপাই জেতালেন বার্সাকে

লা লিগায় ঘরের মাঠে গেতাফের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে জয় লাভ করে বার্সেলোনা। মেসিবিহীন ধুঁকতে থাকা কাতালানদের জয়ের নায়ক মেম্ফিস ডিপেই।

আরেক ম্যাচে ভিলারিয়ালের সাথে কোনোমতে ড্র করেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। এর ফলে তিন জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সোলোনা ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট সমান ৯ এ দাঁড়িয়েছে।

ক্যাম্প ন্যু’য়ে ম্যাচের ২ মিনিটের মাথায় গোল করে স্বাগতিকদের এগিয়ে নিয়ে যান সের্হিও রবার্তো। বা পাশ দিয়ে জর্দি আলবার পাস থেকে গেতাফের জাল খুঁজে পান স্প্যানিশ এ তারকা। ১৮তম মিনিটে সান্দ্রো রামিরেজের গোলে সমতায় ফেরে সফরকারীরা।

৩০তম মিনিটে ডিপেইয়ের গোলে আবারো এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ংয়ের দেয়া বল ডি-বক্স থেকে দুর্দান্ত এক শটে প্রতিপক্ষের জালে ভেড়ান ডাচ এ ফরোয়ার্ড।

বিরতির পর সমতায় ফিরতে কম চেষ্টা করেনি গেতাফে। কিন্তু বার্সেলোনার রক্ষণভাগ ভেদ করতে পারেনি সফরকারীরা।

গত রাতে হেরেই বসেছিল অ্যাতলেটিকো। ম্যাচের ৫২তম মিনিটে ট্রিগুয়েরস এগিয়ে নেন ভিলারিয়ালকে। ৪ মিনিট পর সুয়ারেজের গোলে সমতায় ফেরে অ্যাতলেটিকো। তবে ৭৪ মিনিটে ডানজুমার গোলে পিছিয়ে পড়ে ছ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে হাস্যকর এক ভুলে ড্র করে বসে ভিলারিয়াল।

ম্যাচ শেষ হওয়ার ১০ সেকেন্ড আগে সেভিচ মাঝ মাঠ থেকে কোরেয়ার উদ্দেশ্যে বল পাঠান। তবে বল চলে যায় আইসা মান্ডির কাছে। তিনি হেড দিয়ে বল পাঠান গোলকিপার রুলির কাছে। তবে রুলি তার আগেই গোলপোস্ট ছেড়ে দিয়েছিলেন। ফলে বল জড়িয়ে যায় জালে।

৩ ম্যাচে ২ জয় ও ১ ড্রয়ে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, সেভিয়া, ভ্যালেন্সিয়া ও রিয়াল, মায়োর্কা, অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের সমান ৭ পয়েন্ট। গোল ব্যবধানে এগিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ। অপরদিকে ৩ ম্যাচের সবগুলোতেই হেরে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে রয়েছে গেতাফে।