রোনালদোর গোলও বাঁচাতে পারেনি ম্যানইউকে

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্র্রথম দিনেই অঘটন ঘটিয়ে ফেললো ইর্য়া বয়েজ। শক্তিশালী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে তারা হারিয়েছে ২-১ গোলে।

মঙ্গলবার রাতে এফ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে ইয়াং বয়েজের মাঠে গিয়েছিল ইউনাইটেড। মাত্র ১৩ মিনিটেই গোল করেন রোনালদো। কিন্তু এরপর আর আশা জাগানিয়া ফুটবল খেলতে পারেনি তারা। ৩৫ মিনিটে ওয়ান বিসাকা লাল কার্ড খেয়ে মাঠ ছাড়ার পর একক আধিপত্য্য দেখায় ইর্য়া বয়েজ।

পুরো ম্যাচজুড়ে মাত্র দুইটি শট নেয় ইউনাইটেড, তাও ম্যাচের ২৫ মিনিটের মধ্যে। এরপর শুধু ইয়াং বয়েজের আক্রমণই সামলাতে হয়েছে তাদের। স্বাগতিক দলটি ম্যাচে শট নিয়েছে ১৯টি, যার মধ্যে লক্ষ্যে ছিলো ৫টি।

অথচ এ ম্যাচটি ছিলো রোনালদোর রেকর্ডছোঁয়া ম্যাচ। চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসে রিয়াল মাদ্রিদ কিংবদন্তি ইকার ক্যাসিয়াসের সমান ১৭৭ ম্যাচ খেলার কৃতিত্ব অর্জন করেন তিনি।

দশজনের দলে পরিণত হওয়ার পর আক্রমণের তেজ বাড়ায় ইয়াং বয়েজ। যার সুফল মেলে ম্যাচের ৬৬ মিনিটে গিয়ে। ডান দিক থেকে আসা বলে ম্যাচে সমতা ফেরান মৌমি এনগামালেও।

দুই দল আর গোলের দেখা না পাওয়ায় মনে হচ্ছিল, ১-১ সমতায়ই শেষ হবে ম্যাচ। তখনই আসে চমক। নির্ধারিত সময় শেষে অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে গোলরক্ষককে ব্যাকপাস দিতে গিয়ে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের পায়ে তুলে দেন লিনগার্ড।

পুরোপুরি ফাঁকায় সেই বল পেয়ে গোল করতে কোনো ভুল হয়নি থিওসন সেবাচুর। এ গোলের সুবাদেই ইউনাইটেডকে হারানোর তৃপ্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইয়াং বয়েজ।