সাদিদের বোলিংয়ে মুগ্ধ খোদ স্পিন গ্রেট

কদিন আগে এক খুদে ক্রিকেটারের লেগস্পিনে দখল দেখে যারপরনাই মুগ্ধ হয়েছিলেন লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকার। রীতিমতো বিস্মিত হয়ে সেই পুচকের বল করার ভিডিও নিজের ফেসবুক পেজে আপলোড করেন শচীন। ক্যাপশনে লেখেন, ‘ওয়াও! দারুণ প্রতিভা! ক্রিকেটের প্রতি এই খুদে বালকের গভীর আবেগ ও ভালোবাসা একেবারে স্পষ্ট।’

ভিডিওটি শচীনের প্রোফাইল থেকে আপলোডের পর বিশ্বব্যাপী আলোচনায় এসে পড়েন সেই খুদে স্পিনার। কে এই বিস্ময়কর বালক? তা জানতে শচীনের প্রোফাইলে হুমড়ি খেয়ে পড়েন ভারতীয়রা।

জানা যায়, ভারতের কেউ নন, বাংলাদেশের বরিশালের মহাবাজ এলাকার বাসিন্দা ওই বিস্ময় বালক। দুরন্ত প্রতিভার এই শিশুর নাম আছাদুজ্জামান সাদিদ।

ভারতীয় ব্যাটিং ঈশ্বর শচিন টেন্ডুলকারের পর এবার বাংলাদেশের বরিশাল সদরের ছয় বছর বয়সী ক্ষুদে লেগস্পিনার সাদিদের বোলিংয়ে মুগ্ধ খোদ লেগস্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন।

ক্রিকেটে লেগস্পিন মানে এক অদ্ভুত মায়াবী সৌন্দর্য। আর সেই লেগ স্পিন সৌন্দর্য কারও হাত ধরে যদি পূর্ণতা পেয়ে থাকে তিনি হলেন ওয়ার্ন। কারও কারও মতে তিনি সর্বকালের সেরা স্পিনারও বটে।

এত বড় কিংবদন্তির প্রশংসা কুড়ানো চাট্টিখানি কথা নয়। তবে সাদিদের বোলিং দেখে ওয়ার্ন চুপ থাকতে পারলেন না। সাদিদের বোলিংয়ের ভিডিও কারও মাধ্যম থেকে পেয়ে নিজের মুগ্ধতা লুকোতে পারেননি তিনি।

টুইটারে সাদিদের বোলিংয়ের ভিডিও নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করেছেন শেন ওয়ার্ন।

ক্যাপশনে সাদিদকে প্রশংসায় ভাসিয়ে লিখেছেন, ‘ওয়াও, এটা আমি এই মাত্রই পেলাম। এটা কত ভালো! সে কে? অসাধারণ। এরকম দুর্দান্ত কাজ চালিয়ে যাও। বোলিং...’

শেন ওয়ার্নের টুইটটিও রীতিমতো ভাইরাল। সেখানেও রিটুইটে অনেকে সাদিদের পরিচয় জানিয়ে দিচ্ছেন। সাদিদ বাংলাদেশের ক্রিকেটের ভবিষ্যতের প্রতিনিধি বলে উল্লেখ করছেন অনেকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এর আগেও সাদিদের এই প্রতিভা ভাইরাল হয়েছে।

তিন বছর বয়সেই ক্রিকেটে হাতেখড়ি সাদিদের। বর্তমানে তার বয়স ৬ পেরিয়েছে মাত্র। ক্রিকেটভক্ত সাদিদ অনুসরণ করেন অসি কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন ও আফগান লেগি রশিদ খানকে।

সে জানায়, ‘রশিদ খান এবং শেন ওয়ার্নের খেলা ভালো লাগে আমার। তাদের মতো বল করার চেষ্টা করি।

সাদিদ মূলত অলরাউন্ডার। দুর্দান্ত স্পিন বলিং করে তাক লাগানো সাদিদ ব্যাটিংয়েও সিদ্ধহস্ত তা অজানা অনেকের।’

এখানে তার একমাত্র আদর্শ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সে জানায়, ‘সাকিবের খেলা আমার ভালো লাগে। সাকিব অলরাউন্ডার। তার মতো আমিও খেলতে চাই।